ক্যাটেগরিঃ মানবাধিকার

2015_mena_kuwait_workers

গতকাল মধ্য প্রাচ্যে নারী শ্রমিক নির্যাতন নিয়ে পত্রিকায় একটা খবর পড়লাম । নারী শ্রমিকদের ভয়াবহ অভিজ্ঞতার খবর গুলো পড়ে অনেকক্ষণ চুপ হয়ে বসে ছিলাম । আমার মাথা কাজ করছিল না ।এক মুঠো ভাতের জন্য জীবনের প্রতি কতোইনা  পরিহাস ! পৃথিবীর দরিদ্র দেশ গুলোর মধ্যে বাংলাদেশ ও অন্তর্ভুক্ত । দেশে যদি ভাত কাপড়ের যোগান হতো  কে যেতো স্বামী সন্তান রেখে বাদসা আমিরদের ভোগ পণ্য হতে । অর্থ আর সুখী জীবনের লোভে পড়ে সংসারের বোঝা কমাতে নারী শ্রমিকরা দালালের মাধ্যমে মধ্য প্রাচ্যের দেশ গুলোতে পাড়ি দেয় । অন্যতম দেশ গুলোর মধ্যে সৌদি আরব,কুয়েত,কাতার,দুবাই,বাহ রাইন ।এসব দেশে বেশির ভাগ নারী গৃহ কর্মী কিংবা পরিচ্ছন্নতা কর্মী হিসেবে কাজ করে । প্রথমে তাদের Domestic Worker হিসেবে নিলেও অল্প কিছু সময়ের পর বুঝা যায় তাদের Domestic Animal হিসেবে আনা হয়েছে । তাদের ঘরে বন্দি করে যৌন নির্যাতন এবং শারীরিক নির্যাতন করা হয় । গৃহ কর্মীর কাজের জন্য নিলেও তাদের দিয়ে দেহ ব্যবসা করানো হয় । মধ্য প্রাচ্যে  বাংলাদেশিদের মিসকিন বলে গালি দেওয়া হয় ।গন ধর্ষণ এবং নারী পাচারের মতো ভয়াবহ ফাঁদে আটক আছে কতো নারী কে জানে ।     তবুও যেন বিদেশ প্রীতি কমেনা । কিভাবে কমবে ? আমাদের দেশে ও কি  নারীর জন্য নিরাপদ কর্ম পরিবেশ আছে ?

-1x-1

নিজ দেশের মাটিতেই যখন মানুষ নিজের অস্তিত্ব খুঁজে পায়না তখন মৃত্যু কে আপন করেই বিদেশ পারি দেয় । আজকের বাংলাদেশে এতো বেশি নারীর প্রতি সহিংসতা আর নির্যাতন যে বাইরের পৃথিবীতে নারীর জীবনে কি ঘটে যাচ্ছে তা দেখার সময় কারও নেই । স্বেচ্ছাচারী আর স্বার্থপরতার রাজনীতিতে সবাই নিজের সুবিধা আর স্বার্থ রক্ষার্থে মানবতা দেখায় । যে মানবতা প্রদর্শনে আড়ালে যেন নিজেদেরও একটু সুবিধা হয় । বাংলাদেশে নারীদের অনেক ইস্যু নিয়েই রাজনীতি হচ্ছে । সমাজবাদী আর মানবতাবাদীরা সুন্দর সুন্দর মন ভুলানো বক্তব্য দিচ্ছেন । কিন্তু কেউ সেই সব নারীদের কথা আলোচনায় নেই । যাদের কষ্টে অর্জিত বৈদেশিক আয়ে আমাদের দেশ সমৃদ্ধ হচ্ছে । সেই সব নারী গন ধর্ষণ আর শারীরিক নির্যাতনের পরও পড়ে আছে মৃত্যু পুরীতে ।যারা নির্যাতনের শিকার হয়ে সৌদি দুতা বাসের সেফ শেল্টারে আছে । তাদের জীবনের  ভয়াবহতা আর আর্তনাদের শব্দ কোন টি ভি চ্যানেলে নেই । কোন সংবাদ পত্র তাদের নিয়ে গল্প  কোন গুরুত্বপূর্ণ পাতায় ছাপে না । যারা ফিরে আসতে চাচ্ছে তাদের ফিরিয়ে আনা  নিয়ে  কোন উদ্যোগের কথা মানবতাবাদীদের মুখে নেই । পৃথিবীর বিবেকের পথে “নারী ” যেন কোন অবহেলিত নিরব শব্দ ।অনেক নারী আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছে না ফিরে আসতে পেরে । আশা করি আমাদের মানবতাবাদীদের এই ভয়াবহ বিষয়টির প্রতি সুনজর দিবে । আমাদের সাধারন জনগন সচেতন হবেন । আমাদের মিডিয়া আরও একটু সংবেদনশীল এবং মানবতার পরিচয় দিবেন ।সব খবর এবং সমস্যার সাথে এই সমস্যা কে গুরুত্ব  দেওয়া হোক। তা না হলে দেশের সার্বিক আর্থ সামািজক অবস্থায় বিরুপ প্রভাব পড়বে।