ক্যাটেগরিঃ প্রশাসনিক

 
download

আধুনিক ব্যস্ত জীবনে ঘর থেকে বের হলেই আমাদের নানারকম যানবাহনের উপর নির্ভর করতে হয়। এর মধ্যে রিকসা আর সিএনজি ছাড়া মধ্যবিত্ত কিংবা নিম্নবিত্ত শ্রেণী কোন কিছুই চিন্তা করতে পারে না। আর এই যানবাহনগুলো চলাচলের জন্য সাধারণ জনগণ যেমন স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে তেমনি ঘর থেকে বের হলেই এদের দেখা মিলে। কিন্তু এই যানবাহন গুলোর উপর জনগনের অধিক নির্ভরশীলতাকে পুঁজি করে রিকসা আর সিএনজি চালকেরা রীতিমত জনগণকে ব্ল্যাকমেইলিং করছে।

রাস্তায় সিএনজি মিটারে চলার কথা থাকলেও কোন সিএনজি চালক এই নিয়ম মানে না। মিটারে সিএনজি চালাতে হবে এটা যেন তারা জানেই না। যে ভাড়া দূরত্ব অনুযায়ী একশ টাকা হওয়া উচিত সে ভাড়া তারা কখনো দুইশো কিংবা আড়াইশো চায়। কিংবা ভাড়া দিতে বাধ্য করে। রাস্তায় ট্রাফিক  জ্যাম থাকলে তো কথাই নেই। দেশে আইন আছে প্রয়োগ নেই। ট্রাফিক পুলিশের সামনেই সিএনজি ড্রাইভাররা বেশি ভাড়া নিচেছ। শুধু তা নয় রাতে যাত্রায় সিএনজিতে চলাফেরা ঠিক নয়  কিন্তু অসহায় জীবনের গল্পে সব অসহায়ত্ব সঙ্গী করেই জীবন যাপন করতে হয়।

সরকারের এই ব্যাপারে কোন মনোযোগ নেই। যথাযথ মনিটরিং এর কোন ব্যবস্থা নেই। দিন দিন বেড়েই যাচেছ সিএনজি ড্রাইভারদের অত্যাচার। অনেক সিএনজি ড্রাইভাররা মাদক ব্যবসা, ছিনতাই এবং প্রতারনামূলক অনেক কার্যক্রমের সাথে জড়িত। জনগণের যেমন সব কিছুই গা সয়ে গেছে। সব অন্যায়কে মেনে নিলেই যেন বেঁচে থাকা, নয়তো মৃত্যু। এভাবে একটা স্বাধীন দেশের মানুষ সিএনজি ড্রাইভারদের হাতে তাদের দাপুটে মেজাজের কাছে জিম্মি হয়ে থাকতে পারে না। এখন সময় এসেছে জনগণকে সচেতন হতে হবে। সরকারকে নিতে হবে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ। আমরা দেশপ্রেমে আরো বেশি মনোযোগী হই।