ক্যাটেগরিঃ আর্ত মানবতা, ব্লগার উৎপল চক্রবর্তী স্মরণে

 
images

পবিত্র এই রমজান মাসে ভালো কাজের অংশীদার হোন। নিজেকেও মানবিকতা এবং মূল্যবোধ চর্চা করার জায়গা গুলোতে সম্পৃক্ত করি। এই পৃথিবী কেউই চিরদিনের জন্য আসিনি। সময়মতো সবাইকেই চলে যেতে হবে। তারপর ও যতোটুকু সময় নিয়ে এই পৃথিবীতে এসেছি সে সময়ে যে মানুষ গুলোকে পেয়েছি তাদের ভাল মন্দে পাশে থাকি।
কখন কার জীবনে অনাকাঙ্ক্ষিত সময় আসবে কেউ জানে না। আজ আপনি কারও উপকার করলে কাল হয়তো কেউ আপনাকে করবে। শান্তিময় ধর্মীয় বানী তাই প্রচার করে।
গত ৩০ এপ্রিল রাজধানী এলিফেন্ট রোডে অপ্রত্যাশিত এক দূর্ঘটনা শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্র বিস্ফারণে চারজন মারাত্মক আহত হোন। এদের মধ্যে তিনজন প্রকৌশলী এবং ব্লগার উৎপল চক্রবর্তী ২০ মে, মেরামত কাজে সাহায্যকারী মোনায়েম হোসেন ৭ মে এবং সোহেল হোসেন ১৭ মে মারা যান। আর রেজা আলী এখনও চিকিৎসাধীন। সম্প্রতি কেবিনে রাখায় প্রতি দিন ৬০০০ টাকা খরচ। বিশেষ করে তিনজন ব্যক্তি খুব অসচ্ছল। মৃত মোনায়েম হোসেন, সোহেল হোসেন এবং রেজা আলীর ছোট শিশু সন্তান আছে। প্রকৌশলী এবং ব্লগার উৎপল চক্রবর্তীর পরিবার এবং বন্ধুরা সর্বাত্মক সাহায্য করছেন অসহায় ঐ পরিবার গুলোকে।

এই অসহায় মানুষগুলোর পরিবারকে সাহায্যে আমরা লেখক-পাঠক সমাজও কি এগিয়ে আসতে পারি না? ব্লগার-লেখক সমাজ শুধু লেখেই না, তারা সমাজের অসহায় অনাথের পাশেও থাকে। আসুন, আমরা সবাই ভালো কাজে এগিয়ে আসি। ৫০০-১০০০ টাকা আমরা অনেক সময়ই অনেক অপ্রয়োজনীয় কাজেও ব্যয় করি। আপনাদের সবার থেকে পাওয়া সামান্য করে সাহায্য একটা বড় উদ্যোগে পরিনত হতে পারে। কারও জীবন এবং পরিবার নতুন করে বাঁচতে পারে। মানুষই মানুষের পাশে থাকে।
আসুন, আমরা মানবিকতা চর্চায় এগিয়ে আসি।

এই বিষয়ে বিডিনিউজের শ্রদ্ধেয় ব্লগার লেখক আইরিন সুলতানা আপা সবার কাছে সহযোগিতা আহবান করে একটি মহৎ উদ্যোগ নেন [লিংক]। প্রতিদিনের হাজারও খবর আর নতুন নতুন ইস্যুর ভিড়ে এই আবেদন সবার নজরে হয়তো পৌঁছতে পারেনি কিংবা সবার ব্যস্ততায় অনেকেই লক্ষ্য করেনি। এই পর্যন্ত মাত্র অল্প কয়েকজন সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন। সর্বসাকুল্যে মাত্র ১৩ হাজার টাকা।

আমরা যদি  সম্ভব হলে ৫০০ টাকা করে সবাই অংশ গ্রহন করি তাহলে হয়তো সাহায্যের পরিমান বাড়বে। যা প্রকৃতই পরিবারগুলোকে সাহায্য করা যাবে। যার যতোটুকু সামর্থ আছে আসুন আমরা সবাই যে যার জায়গা থেকে সাহায্যে এগিয়ে আসি। লেখক সমাজের মানবিক মূল্যবোধের জায়গাটাকে সমৃদ্ধ করি।

 

পবিত্র রমজান আমাদের সবার হৃদয় কে প্রসারিত করুক।

সাহায্য পাঠানোর মাধ্যম [অর্থ সংগ্রহের আপডেটসহ বিস্তারিত পোস্ট –দগ্ধ অপর ৩ জন ও পরিবারের জন্য কিছু করাটা জরুরি]:
সুন্দরবন কুরিয়ার
০১৮৪৭২২৬৪৬২
জসিমউদ্দিন রোড, উত্তরার নিকটবর্তী শাখা।

বি:দ্র : এটি বিকাশ নাম্বার নয়। সরাসরি কুরিয়ারে টাকা পাঠানোর মাধ্যম।

সবাইকে মহান সৃষ্টিকর্তা ভাল রাখুন।

অনুরোধে,
নুরুন নাহার লিলিয়ান