ক্যাটেগরিঃ মুক্তমঞ্চ

খবরের চ্যানেল কিংবা খবরে কাগজে চোখ রাখলে এখনো দেখতে পাই ৭১ এর সেই দস্যুরা এখনো আমাদের সোনার মাটিতে পরগাছার মতো রয়ে গেছে। কেঁচোর মতো দেশটাকে যেখানে সেখানে ফুটো করে উপড়ে আসছে। যে কেঁচোর থাকার কথা ছিলো পায়ের তলায়, কিন্তু যা এখন বানরের রূপ ধরে আমাদের মাথায় চেপে বসেছে। দেশের সরকার প্রতিবাদী হিয়ে ওঠা সত্ত্বেও তারা যেন মজা করে সেটা উপভোগ করছে। তরুণ-তরুণীরা যদিও এগিয়ে আসছে তবুও তারা যেন হাঁপিয়ে উঠেছে আর পারছে না।

তবে আমাদের সোনার দেশের হিরার টুকরা মানিকগুলোও তাদের প্রভাবে প্রভাবিত হয়ে যেন এক কালো অগ্নিশিখায় প্রজ্জলিত হচ্ছে। হে আমার সোনার দেশের দেশের মানিক এসো আমরা মাতৃ সোনাকে আঁকড়ে ধরে বাঁচতে শিখি যেন ডাকাতের দল পরাস্ত হয়।

এটা সত্য যে, উস্কানি দিয়ে লালসায় ফেলে হাতিয়ে নিচ্ছে আমাদের মানিকদেরকে। আমরা মানিকদের কেনো এতো লোভ লালসা তাই-ই আমি বুঝি না। আর বুঝবইবা না কেন? কিছুটা তো বুঝি। এর শিকড়ে রয়েছে দরিদ্রতা। দরিদ্র বলেই আমাদের অর্থকড়ির প্রয়োজন খুবই বেশি, আর এই অর্থ তো আর কেউ হাতে উঠিয়ে দিয়ে যাবে না? তবে হ্যাঁ, হাতেও উঠিয়ে দিয়ে যায়, অবশ্যই হাতে উঠিয়ে দিয়ে যায়, যদি কি না রাস্তার উপর ককটেল, বোমা বিস্ফারণ, হত্যাকাণ্ড ইত্যাদি করি।

সরকারে কাছে একটাই অনুরোধ সরকারি চাকুরীজীবীদের বেতন স্কেল বৃদ্ধি না করে শিক্ষিত যুবক বেকারদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করুন।