ক্যাটেগরিঃ পাঠাগার

সমর পালের লেখা একটি বই কিনলাম এবারের একুশে বইমেলা থেকে। বইটির নাম ‘ পদবির উৎসসন্ধান’ । বলা বাহুল্য বইয়ের নামই বইটিকে কিনতে উৎসাহিত করেছিল আমাকে। বাংলাদেশে যে এত পদবির লোক আছে আমার জানা ছিল না। আমারা সাধারনত ভারতীয়দের মধ্যে অধিক পদবির ব্যবহার দেখে অভ্যস্থ। আমারা বাংলাদেশী বাঙ্গালিরাও যে এই ব্যাপারে কম যাই না বইটি না পরলে মনে হয় জানতাম না। মজার ব্যাপার হল পদবির বিন্যাস নিয়ে যে কোন আলোচনা বা বই লেখা হতে পারে সেই ব্যাপারটা আমার অনেক ভাল লেগেছে। অবশ্যই বইটিকে একটি নিরীক্ষাধর্মী কাজ হিসেবে ধরা যায়। আমরা অনেকসময়ই নিজেদের পদবির অহংকার করে বেরাই, জানিনা কিভাবে এলো এই পদবি। বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের কর্মকাণ্ডের প্রতিক বহন করে আসছে পদবি, সেই সুপ্রাচীন কাল থেকে। যেই পেশা থেকে আসা পদবি, তার ধারের কাছেও হয়ত নেই বর্তমান প্রজন্ম। তবুও রয়ে যায় পদবি, পূর্বপুরুষের সুত্র ধরে। অনেক পদবি আবার অর্জিত, তার সংখ্যাটাও কম নয়।

পদবির গর্ব বা অহংকার কিংবা লজ্জা, সবকিছুকেই ছাড়িয়ে যেতে পারে মানুষের উজ্জল বর্তমান। চেনা বামনের যেমন পৈতা লাগেনা ঠিক তেমনি উজ্জল একজন মানুষ কখনই তার পদবির কারনে অনুজ্জল হতে পারে না, হওয়া উচিতও না।

পরিশেষে আমি blog.bdnews24.comএর সুভকামনা করছি এবং এর দীর্ঘ সাফল্য কামনা করছি। পদবির গুনে নয় কর্মকাণ্ডের গুনে দীর্ঘজীবী হোক এই বাংলা ব্লগ।