ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

একটি প্রশ্ন দিয়ে শুরু করি।আচ্ছা বলুন তো একজন মানুষের জীবনে কোন সময়ে খুব বেশি শক্তির প্রয়োজন?সাধারণত শিশু ও বয়োজ্যেষ্ঠের জন্য শক্তির প্রয়োজন তাই না?কিন্তু আমাদের দেশের কিছু কোম্পানী এনার্জি ড্রিংকের বিজ্ঞাপন দেয় যুবকদের শক্তির জন্য!যুবকদের জন্য এনার্জি ড্রিংকের শক্তি কতুটুকু প্রয়োজন?আজকাল শুধু মাত্র যে, যুবকরা এনার্জি ড্রিংক পান করেন না।অনেক ১০ থেকে ১৫ বছরের বাচ্চারা অবিরত খাচ্ছে এনার্জি ড্রিংক।বিভিন্ন খবরের কাগজে দেখলাম এনার্জি ড্রিংকে এলকোহল,পচা সুপারির রস ও বিভিন্ন ক্ষতিকারক পদার্থ থাকে।

স্পীড নামে একটি এনার্জি ড্রিংক,তা খেয়ে যুবকরা তেল মিশ্রিত বাঁশে লাফালাফি করে ও ৫,৬ ১০ তলা বিল্ডিং লাফ দিচ্ছে।এবং স্পীডের আরেকটি বিজ্ঞাপন হলো স্পীড খেয়ে আকাশে ফু দিলে চাঁদ রুটি হয়ে যায়।

প্রাণ কোম্পানীর ফ্রুটো আমের অন্য নাম!নিয়ম অনুযায়ী জুস তৈরিতে ফলের ৮৮ ভাগ পাল্প থাকার কথা। কিন্তু প্রাণের পণ্যে আছে এর অর্ধেকেরও কম।এমন কথা বলতে পারে কিভাবে ফ্রুটো? কিন্তু বেশ চুপ আমাদের সরকার ও সংশ্লিষ্ট কর্তা ব্যক্তিরা।আম আর ফ্রুটো জুস কখনো এক হতে পারে না।

ফুটিকা নামে আরেকটি সুজ তা খেলে নাকি মানুষ সত্য কথা বলে দেয়।১০০ ভাগ প্রিজারভেটিব ও রং ছাড়া তৈরি।অনেকটা মন্দিরে কে-রে আমি কলা খাই না!

বাংলালিংকের একটি বিজ্ঞাপন হলো,বোনাসের কথা শুনে নাকি হাজার বছরের ঘুম ভেঙ্গে যাবে এবং মৃত মানুষ জেগে উঠবে।তাদের বেশ কিছু বিজ্ঞাপন পণ্য ও সেবার সাথে কোন মিল নেই।বিজ্ঞাপন দেখে বুঝার উপাই নেই কিসের বিজ্ঞাপন।

পাওয়ার এনার্জি ড্রিংক যা খেলে যুবকরা গুটিয়ে নয় চুটিয়ে চলে।একজন হাতে কিছু বল নিয়ে নারাচাড়া করা মানে কি চুটিয়ে বাঁচা?সব ফালতু চিন্তা ধারা।

নামি কোম্পানীর,দামি বিজ্ঞাপন মানে কোম্পানী গুলো টাকা খরচ করে অনেক দামি বিজ্ঞাপন তৈরি ও প্রচার করে।কিন্তু তা নিম্ন মানের ও অর্থহীন।উপরের বিজ্ঞাপন গুলো দেখে মনে হতে পারে আমাদের দেশের সব বিজ্ঞাপন মনে একই মানের।আসলে তা বলার কোন সুযোগ নেই, কারণ বর্তমানে আমাদের দেশে অনেক ভাল মানের বিজ্ঞাপন তৈরি হচ্ছে।বিজ্ঞাপন মানে পণ্যের প্রচার।যা ইচ্ছে হলো তাই প্রচার করা না।পণ্য ও সেবার সাথে মিল থাকতে হবে।