ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

রমজানেও হরতালের হুমকি দিয়েছেন ইসলামী দলগুলো ? তাহলে আপনারাই বলেন, আপনারা কোন ধরনের ইসলামী দল হে বাপুরা ? এদেশে ইসলামের কি শান ! ১২ দলের ইসলাম ( ?) জামাতে ইসলাম ? , নেজামে, হরকাতুল, আল বাইয়্যেনাত, আমীনীর কি জানি একখান— আরো কত কি ? আচ্ছা, আপনাদের কি লজ্জা করে না ? ইসলামের এত দল ? ইসলাম তো এক , আল্লাহ এক , কোরআন – এক। তাহলে আপনারা কারা ? এসব আচরন বলে আপনারা কারা ? এদেশে কি ইসলামী শাসন কোথাও আছে ? না কি কোনদিন ছিল ? যে দেশ রাষ্ট্র পরিচালনায় ইসলামকে ব্যবহার করে তাদের দলীয় হীন স্বার্থ হাসিলের জন্য – সেই দেশে তখন কেন আপনারা চুপ থেকেছিলেন ? যারা সংবিধানে ইসলাম এর কিছু শব্দ যোগ করে আপনাদের মন জয় করে এক ধরনের নাটক করেছে , তারা মদ, জুয়া, অশ্লীলতাকে রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাপনায় জায়েজ করেছে তখন কেন আপনারা চুপ ছিলেন ? সামান্য কয়েকটা শব্দ এই প্রতারণামূলক বইটাতে লিখে দিয়েই আপনাদের তারা কিনে ফেলেছিল ? হায়রে আপনাদের ইসলাম প্রীতি। ছি ! দয়া করে ভণ্ডামী ছাড়ুন। রমজানে কষ্ট দেয়ার হুমকি প্রদান করার জন্য তওবা করে নিন। এদেশে আজীবন মুনাফেকরা শাসন করেছে, এখনো মোনাফেকী শাসনই চলছে। আর আপনারা ইসলামের নামে সেইসব মোনাফেকদের নিলর্জ্জভাবে সমথর্ন করে গেছেন। সুতরাং এই মোনাফেকীর দায় দায়িত্ব আপনাদের ঘাড়েও রয়েছে। তো ? কিসের ইসলাম আপনাদের জীবনে বলুন তো ? আপনাদের মুখে ইসলামের নাম শোভা পায় না। তাই এসব মোনাফেকী ছাড়ুন। রমজানে হরতাল যারা ডাকবে, তাদের চেয়ে বড় জালেম আর কে হতে পারে ?