ক্যাটেগরিঃ ব্লগ

মাত্র ২ দিনের ব্যবধানে বাংলাদেশে পালিত হচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় দুই সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব। বাংলাদেশে অবশ্যই এই ধরনের ঘটনা নতুন না হলেও এবারের বিষয়টি বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলে আমি মনে করি । যুগে যুগে বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির হাজারো দৃষ্ঠান্ত স্হাপন করেছে । সেই ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন থেকে শুরূ করে ৭১ এর হাত ধরে বর্তমান পর্য়ন্ত যেন সবাই সবার কাধে কাধ মিলিয়ে দেশের জন্য কাজ করে যাচ্ছে । বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশ তাই এই ক্ষেত্রে অনন্য । এইবারের বিষয়টি এতো গুরূত্ব সহকারে দেখার অন্যতম কারণ হচ্ছে , সাম্প্রতীক সময়ে কিছু ঊশৃংখল মানুষের কারণে আমরা আমাদের সেই সম্প্রীতির ঐতিহ্য হারাতে বসেছি যা আমাদের দেশের জন্য ও জাতি হিসেবে আমাদের জন্য কলংকজনক । কিন্তু সামান্য কয়েকজন মানুষের জন্য আমরা এতো বড় লজ্জা বয়ে বেড়াতে পারিনা , তাই আমাদের উচিত তাদের প্রতিহত করা ।কিন্তু এই ঘটনার ফলে আমাদের সম্প্রীতির মধ্যে সামান্য হলেও অবিশ্বাসের চিড় ধরেছে তাতে কোন সন্দেহ নেই । সবাই মিলে র্তমানে সেই সন্দেহ দূর করার চেষ্ঠা করছি আমরা এবং এ ব্যাপারে সরকার নিজেও বেশ আন্তরিক রয়েছে । এবং সেই বিশ্বাস পূণরূদ্বারের আসল সূযোগ আমাদের হাতে এসেছে । আর তা হচ্ছে এই উৎসব গুলো । সবার উচিত এই দুটো উৎসব যাতে সুন্দর ভাবে শেষ হয় সেই দিকে খেয়াল রাখা এবং এ ব্যাপারে নিজ নিজ অবস্হান থেকে সতর্ক থাকা । কারণ আমরা যদি সুন্দর ভাবে তা পালন করতে পারি তবে আমরা দেশে বিদেশে আমাদের সম্মান উজ্জল করতে পারবো এবং দেশ গঠনে আসরা সবাই সমান তালে কাজ করে যেতে পরবো । করণ উন্নত বাংলাদেশ গঠনে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বিকল্প নেই । অবশেষে আশা করবো আমরা যেন আমাদের যার যার ধর্ম ঠিকভাবে পালন করতে পারি । আমাদের কারো উচিত নয় অন্য কারো ধর্ম কে অসম্যান করা , আমরা কেন এই সব কাজ করি তার কোন ব্যাখ্যা কি আমরা দিতে পারবো , কি মজা পায় অন্যের ধর্মকে অপমান করে ? আসুন আমরা সূখী বাংলাদেশ গড়ি । সবাইকে পূজা ও ঈদের শূভেচ্ছা ।