ক্যাটেগরিঃ প্রযুক্তি কথা

ভুয়া মেইল থেকে সাবধান থাকুন

আজ একটা ইমেইল পেলাম আমার জিমেইল একাউন্টে প্রেরণকারী হিসেবে লিখা আছে “কোকা-কোলা এওয়ার্ড ২০১২”, সাবজেক্টের জায়গাটা খালি, আর ভেতরে ছিলঃ

“Dear e-Mail Winner:

This is to inform you that your E-mail Address was selected as one of the lucky winner of 1,000,000.00 GBP (One Million Pound Sterling) from the Coca-Cola Online Award 2012 Held this Months of September. The Draw No:1593. Contact Mr. Robert Patrick Via E-mail: claimsagent@cocacoladept.co.uk , Fill the Information below and Send for claim:

1. Full Name:
2. Full Address:
3. State:
4. Occupation:
5. Age:
6. Sex:
7. Nationality/Country:
8. Winning Email:
9. Valid Phone Mobile Number:

Your Online coordinator
Eliz Bubb(Mrs.)
Coca-Cola Company Department,
E-mail: claimsagent@cocacoladept.co.uk”

এবার বলুন এই লোভনীয় খবরটি কি সত্য? লটারি হলো, সেপ্টেম্বর মাসের জন্য আমিই বিজয়ী হলাম, সেজন্যে আমাকে কোকা-কোলা কোম্পানী ১০ লক্ষ পাউন্ড দিতে চায়! আমি যে এই লটারির ড্র-তে অংশ নিয়েছিলাম তার প্রমান হিসেবে বলা হলো আমার ড্র নম্বর ১৫৯৩। অনলাইন কোওর্ডিনেটর মিসেস এলিজ বাব জানালেন এই পাত্তি হাতে পেতে আমাকে রবার্ট পেট্রিক সাহেব বরাবর ঠিকানাসহকারে আমার ব্যক্তিগত নানা তথ্য দিয়ে একটি ইমেইল পাঠাতে হবে। সেগুলো হলোঃ নাম, পূর্ণ ঠিকানা, প্রদেশ, পেশা, বয়স, লিঙ্গ, জাতীয়তা/দেশ, বিজয়ী ইমেইল আর সচল মোবাইল নাম্বার।
সাবধান হোন। লোভে পা দেবেন না। এসব মেইল খুলবেন না, খুললেও উত্তর দিবেন না বা কোন লিঙ্ক খুলবেন না।

আরেকটি উদাহরন দেইঃ
জনৈক ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠান, যার নাম drharuna bello একই দিন আমাকে একটি মেইল করেছে; বিষয়ে বলেছে সে আমার সাহায্য চায় (I NEED YOUR ASSISTANCE).
“BUSINESS RELATIONSHIP

Dear Friend,

Let me start by introducing myself,I am Dr Haruna Bello Manager of Bank Of Africa Burkina faso.

I am writting you this letter based on the latest development at my Department which I will like to bring to your personal edification.(18.5 million U.S Dollars transfer claims).

This is a legitimate transaction and I agreed to offer you 40% of this money as my foreign partner after confirmation of the fund in your bank account, If you are interested,get back to me with the following details below.

(1)Your age……..

(2)Your occupation…..

(3)Your marital status…..

(4)Your full residential address…….

(5)Your private phone and fax number and your complete name…….

As soon as I receive these data’s, I will forward to you the application form which you will send to the bank.

Best Regard
Dr Haruna Bello”

বুঝেন ঠ্যালা। ব্যাংক অব আফ্রিকা’র ম্যানেজার মেইল করেছে আমার কিছু তথ্যের জন্য, তার ব্যাংকের একটা ক্লেইম আদায় করে দিতে পারলে শতকরা ৪০ ভাগ আমার। সুতরাং এই তথ্যগুলো সহ যেন তাকে একটা মেইল করে ফেলি। তারপর সে আমাকে একটা আবেদন পত্র দিবে যা পূরণ করে ব্যাংকে পাঠাতে হবে!

তৃতীয় ও শেষ যে ইমেইলটি আজ এসেছে আমার স্প্যামবক্সে তার প্রেরক ironore. এই মেইলের সাবজেক্টে লেখা আছে “You have won 1,350,000 Euros Please Reply to this Email Address: euromillionslottery521…” স্প্যাম্পবক্স পেইজে শুধু এটুকুই দেখা যাচ্ছে। ক্লিক করলাম; ভেতরে একটা স্প্যাম সতর্কবার্তা, মেইলের কোন অংশ ভেতরে দেখা যাচ্ছে না। প্রেরক (ironore@unctad.org) যাদের কাছে এই মেইলটি পাঠিয়েছে তাদের ঠিকানাও (undisclosed recipients) দেখা যাচ্ছেনা। তার মানে UNCTAD-এর কর্মকর্তাদের কারো ইমেইল একাউন্ট হ্যাক হয়েছে।

কয়েকদিন আগে আমার এক বন্ধু এরকম একটি ভুয়া ইমেইল পেয়েছিল যেখানে বলা হয়েছিল সে দুবাইয়ে একটি চাকরি পেয়েছে, ঢাকার একটি মেডিকেল টেস্ট করতে হবে, তার এক সপ্তাহের মধ্যেই চাকরি হয়ে যাবে। বিমান ভাড়া-থাকা-খাওয়া সব মালিকের। সরল মনে বিশ্বাস করে তিন হাজার টাকা দিয়ে মেডিকেল টেস্ট করালো, রিপোর্ট দুবাইয়ের ঠিকানায় কুরিয়ার করলো, পরিবারের সবাই, বন্ধু-বান্ধবদের জানালো তার একটা ভালো চাকরি হচ্ছে। কিন্তু পরবর্তী একমাসেও কোন উত্তর না পেয়ে সে বুঝে গেল কি বোকামীটাই না করেছে। তার দু-একদিনের মধ্যে এক বন্ধুকে শুনতে পেল এমন একটা মেইল পেতে।
এসব স্প্যাম মেইলের উত্তর দিতে গিয়ে বা লিঙ্ক খোলার কারনে অনেকেই তাদের একাউন্ট খুইয়েছেন, কেউ কেউ আমার বন্ধুর মতো মেডিকেল টেস্টও করছেন, কেউ হয়ত আরো বেশী কিছু করছেন। গুগল করলে দেখতে পাবেন এইসব স্প্যাম মেইল নিয়ে ভুক্তভূগিরা পোস্ট দিচ্ছেন নানান ব্লগে, পত্রিকায়। কিন্তু আমাদের দেশে সরকার থেকে মানুষকে সতর্ক করার কেউ নেই মনে হয়। যারা এসব মেইল পান তাদেরই উচিত অন্যদের এসব বিষয়ে সাবধান করে দেয়া। আমি কয়েকজনকে দেখেছি যারা বিভিন্ন সময়ে ইমেইল বা ফেসবুকে স্প্যাম সম্পর্কে লিখে অন্যদের সচেতন করার চেষ্টা করেন। ভালো থাকুন, শান্তিতে থাকুন।