ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

বাসার দাড়োয়ান নিয়োগের ক্ষেত্রে নূন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রয়োজন হলেও সংসদ সদস্যদের শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রয়োজন হয় না। যেখানে ২০ বছর আগে (১৯৯৩ সালে) প্রাথমিক শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে সেখানে ধরেই নেয়া হয় ২০১৩ সালের ২৫/২৬ বছর বয়সী কেউ এখন অশিক্ষিত নেই। তাহলে কেন সংসদ সদস্যদের শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রয়োজন হয় না?

বাংলাদেশ সংবিধানের আর্টিক্যল নং ৬৬ সহ কোথাও সংসদ সদস্যদের শিক্ষাগত যোগ্যতার উল্লেখ করা হয় নাই।

অথচ সংবিধানের আর্টিক্যাল-৬৫ বলা হয়েছে, প্রজাতন্ত্রের আইন প্রণয়ন ক্ষমতা সংসদের উপর ন্যাস্ত হইবে। এ থেকে বোঝা যায়,  সংসদ সদস্যদের প্রধান দায়িত্ব, প্রচলিত প্রথাকে আইনে প্রনিত করা ও দেশ পরিচালনার জন্য সকলের উপযোগী আইন তৈরী করা। যা, যে কোন রাষ্ট্রের সংসদ সদস্যদের খুবই গুরুত্বপূর্ন দায়িত্ব । যে দেশে যতবেশি সময় ও জনগন উপযোগী আইন তৈরী হবে সে দেশ তত উন্নয়ন ও শান্তির পথে হাটবে। যদি তাই হয়, তাহলে সংসদ সদস্যদের নূন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা বিষয়টি সংবিধানে সংযোজন করা প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে হচ্ছে।

যদি আইন বিষয়ক কাজ সংসদ সদস্যদের মূল কাজ হয়ে থাকে তাহলে তাঁদের আইন বিষয়ে ডিগ্রি থাকাটা প্রয়োজন নয় কি? সংসদ সদস্যদের শিক্ষাগত যোগ্যতা কী হবে সে বিষয়ে আর্টিকেল-৬৬-এর সংযোজন করার এটাই কি উপযুক্ত সময় নয় ? আমরা কি পারি না সংসদের প্রাণ ফিরিয়ে আনতে? আমরা কি পারি না ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য একটি পরিপূষ্ট সংবিধান রেখে যেতে? ০১.০১.১১/ সেনট্রাল ল কলেজ।