ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

 

আমাদের লতিফ স্যারের লাশের ছবি.তার মৃত্যুটা ছিল স্বাভাবিক কিন্তু খবরটা আমাদের কাছে এসেছিল অস্বাভাবিকভাবে শুক্রবার সকালে.কারণ,তার মৃত্যুটা কখন হয়েছে তা কেউ বলতে পারে না.তার লাশটা পচে গন্ধ বের হলে আশপাশের লোকজন পুলিশকে খবর দেয়.পুলিশ এসে অর্ধগলিত লাশটি উদ্ধার করে.বাদ মাগরিব নিশান মোরের মসজিদে জানাজার নামাজ শেষে তার পৈতৃক নিবাস রাজবাড়ির পাংশা থানায় নেওয়া হয় এবং ঐখানেই তাকে সমাহিত করা হয়.জানাজায় উপস্থিত ছিল ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-ছাত্র-কর্মকর্তা-কর্মচারিসহ সমাজের সকল স্তরের জনগন.আমরা এই মহান শিক্ষকের মাধ্যমে পেয়েছিলাম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রনীতির ও লোক-প্রশাসন বিভাগটি.তিনি ছিলেন এই বিভাগটির প্রতিষ্ঠাকালীন চেয়ারম্যান.আমি ঐ বিভাগের একজন প্রাক্তন ছাত্র হিসাবে স্যারের জন্য সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করছি.আল্লাহ্ যেন তাকে বেহেস্ত নছিব করেন.