ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা, ফিচার পোস্ট আর্কাইভ

 

তখন রানের সমতা হয়ে গেছে, ম্যাচ ড্র। বাংলাদেশের দরকার আর মাত্র একটি রান।নাসির হোসেন শর্ট ও দিয়েছেন রান সংগ্রহের জন্য নন সাট্রাইকার প্রান্তে দৌড়ে গেলেন ঠিকই আর সাথে সাথে শুরু হল বিজয়ের উল্লাস। ইতি মধ্যে মাঠের দর্শকদের বড় শোরগোল ম্যাচটা জিতলো বাংলাদেশ।মাঠের মধ্যে রিজার্ভ বেঞ্চের প্লেয়াররা ও নেমে উল্লাস করছে কিন্তু ড্যারেন সামির হেয়ালী হাঁসি যেন অন্য কথা বলছে।কিছু তো একটা হয়েছে। আম্পেয়াররাও কিছু বুঝতে পারেন নি।একটু পর সাইড স্ক্রিনে রিপ্লেতে দেখা গেল বিজয়ের আনন্দে নন সাট্রাইকার হতে নতুন প্লেয়ার ইলিয়াস সানি দৌড়ে সাট্রাইকার প্রান্তের দাক না স্পর্শ করেই আবার ফিরে গেছেন।তাই নিয়ম অনুসারে কোন রান হয়নি ।এমন ভুল ক্রিকেটের ইতিহাসে এই প্রথম। সবাই তো হতবাক।আম্পেয়াররা আবার স্টাম্পে বেল তুলে দিয়ে খেলা শুরু করলেন। এন্ড্রি রাসেল এলেন বল করতে। বল করলেন আর এই বলেই নাসির হোসেন সজোরে বলটিকে পাঠিয়ে দিলেন বাউন্ডারী সীমানার বাইরে। তিনি এবার বলটি না পার হওয়া পর্যন্ত তাকিয়ে রইলেন।আর এই চারটি রানের মধ্যে দিয়ে এল সেই কাঙ্খিত বিজয়ের স্বাদ। সাহারা কাপ ২০১২ এর পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ৩-২ এ চ্যাম্পিয়ান হল বাংলাদেশ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও খেলা দেখছিলেন। তিনিও বিজয়ের স্বাদ দুইবার নিয়েছেন।কারন তিনিও প্রথম বারে বাংলাদেশের পতাকা উঠিয়ে দলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে ছিলেন,আবার এই ঘটনার পর নাসিরের চার মারার পর আর একবার বাংলাদেশের পতাকা উঠিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশ দলকে। আর এর পরপরই শুরু হয় বাংলাদেশ ক্রিকেট দল তথা টাইগারদের বিজয় নৃত্য।ক্রিস গেইল,ড্যারেন সামি,পোলার্ড,রোচরা তখনও মাঠে।তাদের সামনে টাইগারারা তাদের উপহার দিল তাদের সেই পরিচিত বিজয়ের নাচ। গেইল,সামি,পোলাডরা তা দেখে মাথা নিচু করে মাঠ ছাড়ছেন।কেমন এক অভুতপুর্ব ঘটনা,স্বাক্ষীও হয়ে রইলেন মাঠের সহ টেলিভিশনের পর্দায় থেকে খেলা দেখা সকল দর্শক।

এই কি সেই ওয়েস্টইন্ডিস দল যারা কিছু দিন আগে বিশ্বকাপ টিটুয়েন্ট তে বিশ্বসেরা-২০১২ এর খেতাব নিজেদের ঘরে তুলেছিল।যাই হোক আমরা সবাই তো দেখলাম বাংলাদেশ টাইগারদের বিজয়ের কাহিনি।যারা এই ডিসেম্বর বিজয়ের মাসে আর ও একটি বিজয় এনে দিল বাংলাদেশর জন্য। অনেক অনেক শুভেচ্ছা তাদের।ধন্যবাদ চ্যানেল নাইন,নিও স্পোটস্ কে। এক অন্যরকম একটি বিজয়ের লাইভ দেখানোর জন্য।

***
ফিচার ছবি: ফেসবুকে বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমের অফিসিয়াল ফ্যান পাতা থেকে সংগৃহিত