ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

National Leader

মানুষের যতগুলো অনুভূতি আছে তার মধ্যে সবচেয়ে সুন্দর অনুভূতি হচ্ছে ভালবাসা । আর এই পৃথিবীতে যা কিছুকে ভালবাসা সম্ভব তার মধ্যে সবচেয়ে তীব্র ভালোবাসাটুকু হওয়া উচিত মাতৃভূমির জন্য । যে মাতৃভূমিকে ভালবাসতে পারে না কোন কিছুকেই তার পক্ষে ভালবাসা সম্ভব না । আমাদের এই ছোট্ট সোনার বাংলাদেশ, যার রয়েছে বীরত্বপূর্ণ গৌরব গাঁথা ইতিহাস । আর এই সাফল্যগাঁথা ইতিহাসের পিছনে রয়েছেন কয়েকজন মহানায়ক । যাদের ঋণ আমরা কখনো শোধ করতে পারবো না ।
তাদের মধ্য অন্যতম হচ্ছেন :

১। শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক,
২। মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানি,
৩। শেখ মুজিবুর রহমান,
৪। জিয়াউর রহমান ।

যার জন্ম না হলে এই বাংলাদেশ হত না । যার জন্ম না হলে পৃথিবীর মানচিত্রে বাংলাদেশ নামক কোন দেশের নাম থাকতো না । এই বাংলাদেশ, এই মায়ের সৃষ্টির জনক হচ্ছে আমাদের জাতীয় পিতা শেখ মুজিবুর রহমান । এই সুন্দর বাতাস, এই সুন্দর নদী, এই স্বাধীনতা যাকে ছাড়া সম্ভব ছিল না তিনি হলেন আমাদের জাতীয় নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান । যার কথা আজো আমাদের বুক নাড়িয়ে দেয়, আমাদের বাহুতে শক্তি এনে দেয় তিনি হচ্ছে আমাদের পরম বন্ধু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ।

কিন্তু এই বাংলাদেশে জন্মগ্রহণ করে কিছু কিছু কুলাঙ্গার এই নেতার বিরুদ্ধে কথা বলে । জাতীয় পিতার গৌরব গাথা ইতিহাস ম্লান করে দিতে চায় । তার ইতিহাস মুছে দিতে চায় ।
এই বাংলার মানুষ কি এতই নিমকহারাম যে মাত্র ৪০ বছর আগের ইতিহাস ভুলে যাবে? জাতির পিতার মহান অবদান অস্বীকার করবে?
উত্তর একটাই, তা হচ্ছেঃ না, না এবং না ।

উনার স্বপ্ন কখনো বৃথা হতে পারে না । যিনি বিশ্বাস করতেন “এই বাংলার মানুষকে কখনো দামিয়ে রাখা সম্ভব না” । কিন্তু এই অপশক্তিগুলো আমাদের দমিয়ে রাখার সাহস কোথায় পায় ?

এরা কি সেই অপশক্তি নয় যারা এই বাংলাকে ধূলিস্যাৎ করতে চেয়েছিল ? যারা এই বাংলার ৩০ লক্ষ মানুষকে হত্যা করেছিল ? আমাদের লাখো মা-বোনের ইজ্জত লুণ্ঠন করেছিল ?

যদি তাই হয় তাহলে এরা আমাদের মহান নেতার স্বপ্নের দেশ, স্বপ্নের সংসারে কিভাবে টিকে আছে?
হে মানুষ, হে বাংলার মানুষ, জেগে উঠো, তাদের ধ্বংস কর যারা আমাদের ইতিহাস মুছে দিতে চায় । তাদের বয়কট করো যারা এই বাংলার সোনালী সুদিন নিয়ে খেলতে চায় ।

আমারা কি সেই বাঙ্গালি নই যারা ৫২ এর জন্ম দিয়েছে? আমরা কি সেই বাঙ্গালি নই যারা ৭১ জন্ম দিয়েছে? তাহলে আমরা কেন সেই বাঙ্গালি হতে পারবো না যারা Digital Bangladesh গঠন করবে?

আমরা কেন ঝাঁপিয়ে পরছি না জয়ী হবার যুদ্ধে?

আমাদের মনে রাখতে হবে শেখ মুজিব যুদ্ধ করেননি কিন্তু তিনি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের স্রষ্টা ।
শেখ হাসিনা, আমাদের জাতির পিতার কন্যা, যিনি ঘোষণা দিয়েছেন, যিনি Digital Bangladesh নামক স্বপ্নের সাথে আমাদের পরিচয় করিয়েছেন । তার স্বপ্নও পূরণ হবে । ইনশাআল্লাহ ।

আমরাই সেই যোদ্ধা যারা মুজিবের স্বপ্ন পূরণ করেছি, তাহলে আমরা কেন Digital Bangladesh গড়ার জন্য যুদ্ধ করবো না? আমরা কেন ঘুমিয়ে আছি? কে আমাদের ঘুম পাড়িয়ে রেখেছে?

Digital Bangladesh নামক মহান স্বপ্নকে কে হাস্যরসে পরিনত করেছে? কার এত বড় আস্পর্ধা? কে সেই পাপিষ্ঠা?

এরা কি তারা নয় যারা আমাদের নিজের দেশে আমাদের হত্যা করেছিল?

শপথ নিন, মুছে দিন সেই বাঙ্গালি নামক অবাঙালিদের নাম । রহিত করুন, ধ্বংস করে দিন তাদের । ফিরিয়ে আনুন আমার সোনার বাংলা আর এগিয়ে জান Digital Bangladesh এর পথে । এটাই হোক নতুন প্রজন্মের চাওয়া ।

আসছে ১৫ই আগস্ট আমাদের এই জাতীয় নেতার মৃত্যু দিবস । এটি আমাদের জাতীয় শোক দিবস হিসেবে পালিত হয় । এই পবিত্র দিন উপলক্ষে আমরা সবাই তার রুহের মাগফিরাত কামনা করছি ।

সবাই ভাল থাকুন ।
ধন্যবাদ ।