ক্যাটেগরিঃ ধর্ম বিষয়ক

 

“সকল ঈদের সেরা ঈদ ‘ঈদে মিলাদুন্নবী’। এমনকি মুসলমানদের সবচেয়ে বড় দুটি বাৎসরিক ঈদ যথা ঈদুল ফিতর, ঈদুল আযহা। এগুলোর চাইতেও বেশি বড় ঈদ হল ‘ঈদে মিলাদুন্নবী’। আর যে ব্যক্তি ঈদে মিলাদুন্নবী’ পালন করে না সে কখনো রাসূল (সঃ) এর আশেক হতে মানে রাসূল (সঃ) এর প্রেমী হতে পারে না। এমনকি সে কখনো রাসূল (সঃ) এর উম্মতি হতে পারে না। আর এই যে আমরা বাৎসরিক যে দুটি ঈদ পালন করি। সেটা নাকি আমরা লোক দেখনোর জন্য করি। এবং ঈদের নাম করে নাকি আমরা আমাদের মা, বোনদের পেট খালি, পিঠ খালি করে রাস্তায় বের করে দেই। আর তাই এদুটি ঈদ কখনো প্রকৃত ঈদ হতে পারে না। প্রকৃত ঈদ হল ‘ঈদে মিলাদুন্নবী’ “

উপরিক্ত কথা গুলো আমি একদিন এক ব্যক্তির কাছে শুনেছিলাম। মাস তিনেক পূর্বে আমি এক কম্পিওটার দোকানে গিয়েছিলাম। তো সেখানে এক ব্যক্তি তার কম্পিওটারে ওয়াজ শুনতেছেন। আর আমিও সেখানে যাওয়ার কারণে বাধ্য হয়ে কিছুক্ষণ ওয়াজ শুনলাম। আমি তার ওয়াজ শুনে কিছুটা আন্দাজ করতে পেরেছিলাম। যে এই বক্তা নিশ্চয়ই মাজার পূজারি ও কবর পূজারি। আর এই ব্যক্তি হল ঐ বক্তার ভক্ত। যখন বক্তা তার ওয়াজে বললেন যে, সকল ঈদের সেরা ঈদ ‘ঈদে মিলাদুন্নবী’। তখন সেই ভক্তের কাছে আমি বললাম এটা কি করে সম্ভব। বক্তা তো ‘ঈদে মিলাদুন্নবী’ এর সামনে ঈদুল ফিতর, ঈদুল আজহাকে তুচ্ছ করে ফেললেন। তখন ওই ভক্ত আমাকে উপরিক্ত কথা গুলো বললেন।

ede miladonnbi

এখন আমি বলি, ‘ঈদে মিলাদুন্নবী’ পালন করা যাবে কিনা? ঈদে মিলাদুন্নবী হল আরবি তিনটি শব্দের সম্মিলিত রূপ। ঈদ, মিলাদ ও নবী এই তিনটি শব্দ নিয়ে এটি গঠিত। আভিধানিক অর্থে ঈদ অর্থ খুশি, মিলাদ অর্থ জন্ম, নবী অর্থ বার্তাবাহক। পারিভাষিক অর্থে মহানবী সঃ এর জন্মের আনন্দকে ঈদে মিলাদুন্নবী বলা হয়। তার মানে ওরা মহানবী সঃ এর জন্ম দিনটাকে জন্ম উৎসব হিসেবে পালন করে।

আর আমরা জানি, জন্ম দিবস বা মৃত্যু দিবসের কোন ভিত্তি ইসলামের মাঝে নেই। আর ১২ রবিউল আউয়াল রাসূল (সঃ) এর যে জন্ম তারিখ তারই কোন সঠিক ভাবে স্পষ্ট নয়। তবে এই দিন যে রাসূল (সঃ) মৃত্যু বরণ করেছিলেন সে বিষয়ে সবাই একমত। তো এখন আমরা কিভাবে রাসূল (সঃ) এর মৃত্যু দিবসে জন্ম উৎসব পালন করব। আর যে ব্যক্তি রাসূল (সঃ) কে সঠিকভাবে অনুসরণ করবে না এবং তাকে মনে প্রাণে ভালোবাসতে পারবে না, সে কখনোই রাসূল (সঃ) এর উম্মত হতে পারবে না।

আর তাই ঈদে মিলাদুন্নবী পালন করা নিয়ে মুসমানদের মধ্য মতভেদ থাকায় অধিকাংশ হক্কপন্থী বিজ্ঞ আলেমের মতে ঈদে মিলাদুন্নবী পালন করা বিদয়াত এবং বর্জনীয়। আর বিদয়াত সর্বদাই পরিতাজ্য। পরিশেষে, আল্লাহ তায়ালা আমাদের সবাইকে যেন সঠিক বুঝ দান করেন। আমিন।