ক্যাটেগরিঃ মুক্তমঞ্চ

 
2016_03_17_1_9_b

বেলায়েত সাহেবের একটা ফেসবুক অ্যাকাউন্ট আছে, বেলায়েত হোসেন নামে। তার প্রোফাইল খুব বেশী উচ্চমানের না হলেও বন্ধু বান্ধবের সংখ্যা নেহায়েত কম নয়, পাঁচশ ছাড়িয়ে ছয়শ ছুই ছুই। যদিও তার মধ্যে জনা পঞ্চাশেক আছে যাদের সাথে কখনই তার দেখা সাক্ষাৎ হয়নি, তাতে কি তারা তার ফেসবুক বন্ধু। এতো এতো বন্ধু থাকা সত্ত্বেও তার দেয়া পোস্টগুলোতে তেমন একটা সারা পরে না। অথচ অনেক ফালতু পোস্ট হাজারে হাজার লাইকে কমেন্টে ভরে যায়, তার নোটিফিকেশন সেসবে ভরপুর, অমুক বন্ধুর তমুক পোস্ট যেখানে তিনিও যুক্ত এসব দেখতে দেখতে তার অনেকটা সময় চলে যায় ফেসবুকের পেছনে। তিনিও খুব চেষ্টা করেন নানা রকমের পোস্ট এই যেমন জোকস, গুরুত্বপূর্ণ খবরের লিংক, আধুনিক প্রযুক্তির আবিষ্কার, চিকিৎসা সংক্রান্ত টিপস, এমনকি রান্না বান্নার নানান পোস্ট দিয়ে দেখেছেন কিন্তু এই বড়জোর চল্লিশ পঞ্চাশ লাইক পান এর বেশিনা। তার চেহারা আহামরি কিছু না হলেও সুন্দর সুন্দর জায়গায় দাড়িয়ে, বসে, শুয়ে, চিৎ হয়ে, কাৎ হয়ে অনেক ভঙ্গিমায় ছবি তুলেও পোস্ট করেছেন, কিন্তু কিছুতেই কিছু হচ্ছে না, পপুলার হতে পারছেন না। বার কয়েক প্রোফাইল পিকচার বদলে ফেলেছেন, কিসের কি একই অবস্থা। কিন্তু সেদিন একটা খবর দেখে তিনি নতুন ফন্দি আঁটলেন, ফটোশপ নামক একটা সফটওয়্যার কাজে লাগিয়ে নিজের একটা ছবি জুড়ে দিলেন হলিউডের বিখ্যাত নায়ক টম ক্রুজের সাথে, কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে একজন আরেকজনের কাঁধে হাত রেখে হাসি ভরা মুখের ছবি, কি দারুন করেই না কাজটা করেছেন তিনি, বোঝার কোন উপায় নেই যে এটা আসল চিত্র নয়। ছবির পেছনে সেই পাহাড়ের গায়ে বিশাল করে হলিউড লেখা, সামনে হাসিমুখ বেলায়েত সাহেব আর পাশে বিখ্যাত হলিউড নায়ক টম ক্রুজ। পাশাপাশি হাসাহাসি দারুন একটা ছবি। তিনি এই ছবিটা পোস্ট করলেন সাথে একটা ক্যাপশন জুড়ে দিলেন “আমি আর হলিউডের বিখ্যাত নায়ক টম ক্রুজ (যদিও নামটা না লিখলেও সবাই চেনেন) একসাথে, একই উচ্চতায়।” এইবার বেলায়েত সাহেবের স্বপ্ন পুরন হল। তার বন্ধুরা সবাই তো লাইক দিলোই, তারা আবার শেয়ার করলো তাদের নিজস্ব পেজে, সেখানেও ব্যাপক সারা ফেলে দিলো এই ছবিটা, কমেন্টে কমেন্টে ভরে যেতে লাগলো তার পোস্ট। অনেকে কমেন্টে লিখেছে এই যেমন, কবে গিয়েছিলে হলিউড, টম ক্রুজ তোমার কাছের মানুষ আগে জানতাম না, আমাকে নিয়ে যাও নাই কেন, প্রাউড অফ ইউ, কি ফাটাফাটি ছবি, তোমাকে দারুন লাগছে, টম ক্রুজ ফেল, ইত্যাদি ইত্যাদি আরও কত কিছু।

বেলায়েত সাহেব মনে মনে হাসেন। কিন্তু শত শত কমেন্টের মধ্যে একটা কমেন্টে তার চোখ আটকে যায়, কমেন্টটা এমন, ময়ূরের পুচ্ছ লাগাইলেই কাক ময়ূর হয়ে যায় না ভাই। বেলায়েত সাহেব ভাবেন সত্যি তাই, কোথায় তিনি আর কোথায় ক্রুজ। তিনি ভাবেন জীবন যাপনের ব্যয় এক হলেই তো আর ঢাকা মনট্রিল হয়ে যায় না, দুটোতে বিস্তর ফারাক, বিস্তরই বটে। যে খবরটা তাকে উৎসাহিত করেছিল এমন একটা চিত্র তৈরি করে পোস্ট করতে, খবরটা এমনই ছিল।