ক্যাটেগরিঃ জনজীবন

 
রায়হান তানজীম

একজন মানুষ আর একজন অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াবে এটায় তার মনুষ্যত্বের পরিচয়, তার দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিবে এটাই নিয়ম, নিষ্ঠুর এই পৃথিবীতে ক্রমশ আমরা যান্ত্রিক হয়ে যাচ্ছি ,আবেগ অনুভূতি গুলোকে বন্ধী করছি শুধু নিজের জন্য, নিজের পরিবারের জন্য ,ভাবছি আমরা অনেক এগিয়ে যাচ্ছি কিন্তু আসলে ব্যাপার টা ঠিক তেমন না, পরোপকার না করলে প্রকৃত আত্মতৃপ্তি মেলেনা , তাই আসুন আমরা নিজের পরিবারের পাশাপাশি যার জতটুকু সামার্থ্য আছে তাই নিয়ে অসহায়ের পাশে দাঁড়ায়।

ছবিতে যে ছেলেটাকে দেখছেন ও আমাদের গ্রামের এলাকার দরিদ্র এক পিতার সন্তান, বাড়িতে গিয়ে দেখি আমার চাচার বিভিন্ন কাজে সহযোগিতা করছে , আমার স্বভাব মোতাবেক আমি প্রকৃতিকে ফ্রেমে বন্দি করছিলাম ও দেখি ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে আছে কাছে, কাছে ডেকে জিজ্ঞাস করলাম কি ছবি তুলবা ? ও লজ্জা লজ্জা করে হ্যাঁ বলল, অতঃপর ওকে এভাবেই ক্যামেরাই বন্দি করেছিলাম ও তাতেই অনেক খুশি।
আমি বলছিনা এভাবেই খুশি করতে হবে, তবে যেভাবেই হোক নিজের সামান্যতম কাজের জন্যও কারো মুখে হাঁসি ফোটাতে পারলেই প্রকৃত আত্মতৃপ্তি মেলে।

লেখা- রায়হান তানজীম
মিরপুর-১