ক্যাটেগরিঃ ব্লগালোচনা

বাংলা ব্লগ এর আবির্ভাব খুব বেশী নতুন নয়, আবার খুব পুরনো ও বলা যাবে না। প্রায় অনেক গুলো বাংলা ব্লগ সাইটে আমি বেশ কিছুদিন ধরে পদচারণ করেছি। ইন্টারনেটের অন্য ভাষার ব্লগ সাইট গুলো থেকে আমাদের বাংলা ব্লগ সাইট গুলো ব্লগারদের চাওয়া পাওয়া পূরণের দিক থেকে এখনও খানিকটা পিছিয়ে। তবে অত্যন্ত ভাল লাগার বিষয় যে এখন আমরা মায়ের ভাষায় ব্লগ লিখতে পারছি। আর এ জন্য বাংলা ব্লগ সাইট গুলোকে সাধুবাদ। একজন ব্লগার হিসেবে আমি আমাদের বাংলা ব্লগ সাইট গুলোর কাছ থেকে কি কি প্রত্যাশা করি তা’ই খানিকটা তুলে ধরলাম। বিভিন্ন বাংলা ‘নিউজ ব্লগ’ এবং ‘কমিউনিটি ব্লগ’ সাইট ঘুরে ঘুরে এগুলো আমার একান্ত নিজ ভাবনা। সবাই মতামত দিলে আশা করি ব্লগ সাইট গুলো ব্লগারদের দৃষ্টিকোণ থেকে মূল্যায়ন করতে পারবে এবং আরও জনপ্রিয় হয়ে উঠবে।

নতুন ব্লগার এবং এডমিন এর রেস্‌পন্সঃ নতুন ব্লগার রেজিস্ট্রেশন করেন ব্লগ লেখার জন্য। কেউ কেউ বিভিন্ন অন্যের ব্লগ বা পোস্টে মতামত বা কমেন্ট লিখে শুরু করেন আবার কেউ কেই শুরুতেই ব্লগ লেখেন। কিন্তু সবাই চায় তার ব্লগ বা কমেন্ট পাবলিশ হোক এবং সবাই পড়ুক। নিজের লেখা প্রথম পাতায় প্রকাশ হয়েছে সেটা দেখায় যে একটা প্রচ্ছন্ন আনন্দ আছে সেটা সবাই স্বীকার করবে। আর যদি নিজের ব্লগে কেউ কমেন্ট করে, তাতে সে আনন্দ যেন আরও বেড়ে যায় শত গুন। অনেক ব্লগ সাইট দেখেছি তারা নতুন ব্লগারদের শুরুতেই ব্লগ লেখার সুযোগ দেয় না বা অন্যের লেখাতে কমেন্ট করার সুযোগ দেয় না (যেমন: http://www.amarblog.com)। ‘স্প্যাম’ বা ‘ফ্লাডিং’ এড়াতে এ ধরনের কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হয়। কিন্তু এতে নতুন ব্লগারদের উৎসাহে ভাটা পরে এবং তারা আস্তে আস্তে ঐ সাইটে যাওয়া বন্ধ করে দেয়। একটা উদাহরণ দেই – ‘সাম হোয়্যার ইন ব্লগ (http://www.somewhereinblog.net/)’এ একজন ব্লগার লিখেছেন তিনি ১১ মাস যাবত রেজিস্টার করেছেন, কিন্তু এখনও প্রথম পাতায় লেখার সুযোগ পাননি। আমি ঐ ব্লগার এর প্রোফাইল ঘেঁটে দেখলাম তিনি বেশ কিছু ভাল ব্লগ ও লিখেছেন, কিন্তু এডমিন সেগুলো পড়েনি ও মূল্যায়ন করেনি। ব্লগার চায় ব্লগ সাইট গুলো নতুন ব্লগারদের প্রতি আরও যত্নবান হবে এবং তাদের স্ট্যাটাস এর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গুলো আরও তড়িৎ গ্রহণ করবে।

ব্লগারদের অভিযোগ আর অসুবিধাগুলোর তড়িৎ সমাধান: জনৈক ব্লগ সাইটে আমি একবার কিছু অসুবিধার কথা এডমিন’কে জানানোর পর প্রায় কয়েক মাস ধরেও কোন সাড়া পাইনি, শেষে হাল ছেড়ে দিলাম। টিকেট নাম্বার দিয়ে পুনরায় মেইল করেও কোন লাভ হয়নি। ব্লগার হিসেবে আমি চাই আমার সমস্যা গুলোর তড়িৎ সমাধান হোক। আর সেটা সম্ভব না হলে এডমিনের উচিত অন্তত ব্লগারকে আশ্বস্ত করা যে তার সমস্যাটি গ্রহণ করা হয়েছে এবং শীঘ্রই সমাধান করা হবে। একটি ভাল ব্লগ সাইটের অ্যাডমিন সব সময়ই ব্লগারদের সমস্যার প্রতি যত্নবান থাকেন।

মত প্রকাশের স্বাধীনতা: সব ব্লগ সাইটেরই কিছু মূলনীতি, মতাদর্শ এবং নীতিমালা থাকে। অনেক ব্লগ সাইট আছে যারা বিষয় ভিত্তিক লেখা আহবান করে। আবার অনেক ব্লগ সাইট, বিশেষ করে কমিউনিটি ব্লগ সাইটগুলো, সব ধরনের লেখাই আহবান করে। মূলনীতি বা মতাদর্শ রক্ষা করতে যেয়ে অনেক সময়ই ‘ব্লগ টিম’ ভিন্ন মতের লেখা বা ব্লগকে স্বাগত করেন না, এমনকি মাঝে মাঝে ব্লগও মুছে দেয়া হয়। আমার মতে খুব বেশি নিয়ম নীতি আরোপ করে একটি সফল ব্লগ সাইট তৈরি করা সম্ভব নয়। এডমিন যত কম ইন্টারফেয়ার করবেন, ব্লগাররা তত বেশি স্বচ্ছন্দ বোধ করবে আর ব্লগ সাইট আরও প্রাণবন্ত হয়ে উঠবে। তবে পর্নগ্রাফি, মৌলবাদ, সন্ত্রাস এবং ব্যক্তিগত আক্রমণের ক্ষেত্রে এডমিন অবশ্যই কঠোর হবেন, সেটাই কাম্য।

মতামত বা কমেন্ট মডারেশনঃ অশ্লীলতা আর ব্যক্তিগত আক্রমণ ব্যতীত কমেন্ট মডারেশন করা উচিত নয় বলে আমি মনে করি। অনেক সময়, ‘ব্লগ টিম’ কমেন্ট মডারেশনের ক্ষেত্রে পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করেন এবং নিজেদের মতাদর্শ চাপিয়ে দিতে চেষ্টা করেন, সেটা ঠিক নয় বলে আমি মনে করি। ভিন্ন মত গ্রহণ করার মত সহ্য ক্ষমতা যেমন ব্লগারদের থাকা উচিত, তেমনি ‘ব্লগ টিমের’ ও থাকা উচিত।

ব্লগ রেটিং: ব্লগারদের লেখা গুলোকে রেটিং এর আওতায় আনা যেতে পারে। এই রেটিং পাঠকরাই করবেন। এতে করে ভাল ব্লগ লেখার প্রবণতা বাড়বে। আর খারাপ লেখা ব্লগ গুলো পাঠকরাই বাজে রেটিং দিয়ে বর্জন করবে। প্রতি মাসে বা সপ্তাহে সবচে বেশী রেটিং প্রাপ্ত ব্লগারের নাম প্রকাশ করা যেতে পারে।

গ্রুপ ব্লগিংঃ বেশির ভাগ ব্লগ সাইটেই গ্রুপ বা বিষয় ভিত্তিক ব্লগিং এর অপশন আছে। এই অপশন থাকলে ব্লগার নিজের পছন্দ মত গ্রুপ বেছে নিতে পারেন আর সেখানেই লেখালেখি চালিয়ে যেতে পারেন। এতে মতামত বিনিময়ের সুযোগ প্রসারিত হবে।

ব্লগার প্রোফাইল পেজ্‌ঃ প্রোফাইল পেজ্‌ অনেকটা ব্লগার এর মনের প্রচ্ছদের মত। ব্লগার চান তার প্রোফাইল পেজ এ নিজেকে তুলে ধরতে, নিজের মানসিকতা কে সুন্দর করে প্রকাশ করতে। ছবি, গ্রাফিক্স, ব্যানার, কমেন্ট, ইত্যাদি প্রোফাইল পেজ এ সন্নিবেশের সুযোগ রাখা যেতে পারে, যাতে ব্লগার নিজেকে তুলে ধরতে পারেন। পাশাপাশি, ব্লগার এর গোপনীয়তার বিষয়টি গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করতে হবে। অনেক ব্লগারই চান নিজের পরিচয়টা গোপন রাখতে।

ব্লগার হিসেবে আমার ব্লগ সাইট’র প্রতি আমার আমার চাওয়া পাওয়া নিয়ে লেখা আজ এ পর্যন্তই। আরও লিখব আশা করছি এ নিয়ে।