ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

 

শুনেছি রক্তের নাকি একটি বর্ণ। সেটা ধনী-গরীব, চোর-ডাকাত, ভাল-খারাপ সবারই একই বর্ণ। কিন্তু কেন এত হানাহানি, কেন এত রক্তক্ষরণ। ইদানিং বিভিন্ন দেশে অস্ত্র তৈরির প্রতিযোগিতা চলে। কে কত ভয়ঙ্কর মরনাস্ত্র তৈরি করতে পারে। আবার রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন অনুষ্ঠানে এইসব অস্ত্রের মহড়া চলে। ঘটা করে এইসব মরনাস্ত্র প্রদর্শনী হয়। রাষ্ট্রের অনেক টাকা খরচ করে এইসব প্রদর্শনীর কি মানে? আর এ সবই তো একজন মানুষ কর্তৃক আর এক জন মানুষ মারার কৌশল। আসলে মানুষ কত ভয়ঙ্কর। স্বার্থের জন্য তারা একজন অপরকে খুন করতেও দ্বিধা করেনা। যে সুন্দর পৃথিবী গড়ার জন্য আমরা সবাই সংকল্পবদ্ধ, সেই প্রিয় পৃথিবীটাকে আমরা তিলে তিলে ধ্বংস করছি। কেন এই ধ্বংসের মহড়া? আমরা পৃথিবীটাকে কি একটা অভিন্ন পৃথিবী হিসাবে গ্রহন করতে পারিনা? ধ্বংস হোক রক্তপাত, শুরু হোক বন্ধুত্ব। শুরু হোক বিদ্বেষহীন নতুন পথচলা। আমরাই পারি, আমরাই পারব আমাদের অস্তিত্বকে ধরে রাখতে।