ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

 

পন্য বিপননের প্রসার ঘটাতে কয়েকটা বিষয়ের উপর গুরত্বারোপ করা যেতে পারে । যেমন পন্যের গুনগত মান , পন্যের আনুপাতিক বিক্রয় মুল্যের গ্রহনযোগ্যতা , পাশাপাশি সেই পন্যের খুচরা যন্ত্রাংশের সহজপ্রাপ্তি । আর এগুলোর ইতিবাচক সূচক তখন আরও সহায়ক ভূমিকা রাখে যখন তার বিপননে ব্যবহৃত হয় একটি সৃজনশীল , প্রতিশ্রুতিপ্রবণ বাজারজাত ব্যবস্থা, এবং বিজ্ঞাপন আকারে বিভিন্ন গনমাধ্যমে রুচিশীল প্রচারণা ।

এত কিছুর পরেও উন্নত গ্রাহক সেবা ( কাষ্টমার সার্ভিস ) যা পন্যের ‘বাজার ভারসাম্য’ নিয়ন্ত্রনে রেখে পন্যকে গ্রাহক বা ভোক্তার দীর্ঘ মেয়াদী দৈন্যন্দিন পছন্দের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করতে অত্যন্ত স্পর্শকাতর ভাবে ভূমিকা রাখে ।

উন্নত ‘কাষ্টমার সার্ভিস’ হতে পারে যে কোন পন্যের বাজারে টিকে থাকবার অন্যতম উপায় । উদাহরনস্বরুপ একটি পরিবহন কোম্পানীর বাস দুরপাল্লার যাত্রি নিয়ে নিয়মিত আসা যাওয়া করে ঢাকা খুলনা ও ঢাকা চট্টগ্রাম রুটে । ঐ একই রুটে এমন আরও বাস চলাচল করে তন্মধ্যে বাসের সংখ্যা , বাসের মান , ও উন্নত ব্যবস্থাপনা বিবেচনায় রেখে ‘যাত্রিসকল’ নির্বাচন করবেন তারা কোন্ বাসে যাতায়াত করবেন , সেজন্য পরিবহন কোম্পানীর ব্যবস্থাপনার মূল মন্ত্র হচ্ছে একটি উন্নত কাষ্টমার সার্ভিস ইউনিট , এই ইউনিটের প্রশিক্ষিত সদস্যদের স্মিত প্রানবন্ত হাসি মাখা ভালো ব্যবহার , প্রোডাক্ট সম্পর্কে সঠিক ধারণা , পরিশিলিত বাচন ভঙ্গি , এবং সাহায্য নির্ভর মানসিকতা দ্বারা তারা যাত্রিগনের কাঙ্খিত সেবা প্রাপ্তি নিশ্চিত করে ফলে উল্লেখিত বাস কোম্পানীর সুনাম বৃদ্ধি পায় এবং তাদের ব্যবসা উত্তরোত্তর সাফল্য পায় ।

অনুরুপ একটি ব্যাংক এরও আছে বিভিন্ন প্রোডাক্ট যেমন ডিপিএস ( ডিপোজিট পেনশান স্কীম ) এম এস এস ( মান্থলি সেভিংস স্কীম ) এফ ডি আর ( ফিক্স ডিপোজিট ) এম আই এস ( মান্থলি ইনকাম স্কীম ) ডিবিএস ( ডাবল বেনিফিট স্কীম ) এছাড়া রয়েছে সঞ্চয়ী ও চলতি হিসাব সুবিধা । ব্যাংকের শাখায় বিনিয়োগ , এলসি , ও লেন-দেন সুবিধার জন্য কতকগুলি বিভাগ গ্রাহকদের বিভিন্ন সেবা আলাদা আলাদা ভাবে দিয়ে থাকে , যেমন বিনিয়োগ বিভাগ , বৈদেশিক বানিজ্য বিভাগ , জেনারেল ব্যাংকিং, ক্যাশ বিভাগ , আর এ সবগুলো বিভাগেই তাদের শক্তিশালী ‘কাষ্টমার সার্ভিস’ উন্নত গ্রাহক সেবা দিয়ে উজ্জ্বল করে ঐ ব্যাংকের ভাবমূর্তি এবং কাঙ্খিত মুনাফা অর্জন করে । আর দখল করে বাংলাদেশ ব্যাংকের ক্যামেল রেটিং এ শীর্ষস্থান ।