ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

সম্মানিত সকল পাঠকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি । বিগত ৭ জানুয়ারি ২০১৫ আমি আমার ব্লগে ” যমুনা ব্যাংক এ জাল টাকা ” শিরোনামে একটি ভুল সংবাদ প্রকাশ করি । পরবর্তীতে আমি অবগত হই উক্ত ভুল সংবাদ প্রকাশ করাটা একটা বড় ধরনের অপরাধমূলক কাজ। সেদিন  ব্যাংক থেকে আমি টাকা উত্তোলন করে উক্ত টাকা নিয়ে ব্যাংক থেকে বেরিয়ে যায়। পরবর্তীতে অন্য ব্যাংকে গেলে তারা আমার ১০০০ টাকা জাল টাকা হিসেবে সনাক্ত করে টাকাটা বাজেয়াপ্ত করে দেয় । তখন আমি উত্তেজিত হয়ে যমুনা ব্যাংকে গিয়ে অহেতুক তাদের সাথে বাগবিতণ্ডা করি। যেটা করা আমার উচিৎ হয়নি । মূলত আমার কাছে কোন প্রমাণ ছিলনা যে আমি ওই জাল টাকা যমুনা ব্যাংক থেকে উত্তোলন করেছি । আমি এখনও জানি না, ওই  জাল টাকা আমার টাকার ভেতরে কিভাবে আসলো ।

না জেনে না বুঝে প্রমান ছাড়া  অহেতুক কোন প্রতিষ্ঠান এর বিরুদ্ধে  সংবাদ প্রকাশ করা এক ধরনের অপরাধমূলক কাজ। তাই উক্ত অপরাধের জন্য আমি সমস্ত পাঠক ও উক্ত ব্যাংক কর্মকর্তাদের নিকট আন্তরিক ভাবে ক্ষমা চাচ্ছি, আমার অপরাধকে বড় করে না দেখে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। কারন মানুষ ভুল থেকে শিক্ষা গ্রহন করে, সেই সাথে অঙ্গীকার করছি যে, এ ধরনের ভুল সংবাদ প্রচার করে কখনো জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করব না । সত্য প্রকাশের স্বাধীনতা সকলের রয়েছে। কিন্তু সেই সত্য প্রকাশের জন্য অবশ্যই সত্য প্রমানের দরকার যা আমার কাছে নেই কিংবা ছিল না ।

উক্ত  বিভ্রান্তিকর সংবাদ প্রকাশের জন্য আমি আবারও লজ্জিত ও ক্ষমা পার্থনা করছি সকল পাঠক ও যমুনা ব্যাংক কর্মকর্তাদের নিকট ।

index