ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

অগ্নিসংযোগ, গাড়ি ভাংচুর, আগ্নেয়াস্ত্র, লাঠি-সোটা, রান দা-চাপাতি নিয়ে দৌড় ঝাপ, পুলিশের পিটুনি, টিয়ারশেল নিক্ষেপ তারপর মানুষের প্রাণহানি। এই সব হলো আমাদের দেশের বর্তমান রাজনীতির একটা কালচার। ক্ষমতার আশায়, বাড়ি রক্ষা, অর্থ রক্ষা, স্বার্থ রক্ষা, দোষীকে নিদোর্ষ সাজাতে, ক্ষমতায় টিকে থাকতে আরো অসংখ্য কারণে রাজনীতির কত নীতিই না ব্যবহার করেন রাজনীতিবিদগণ। আমাদের দেশে যে রাজনীতি চলছে তা কি রাজনীতির নীতি অনুযায়ী চলছে? এ বিষয়ে ভালো বলতে পারবেন দেশের জনগণ। একটি দেশ চলে সংবিধানের আওতায় আর সেই সংবিধান নিয়েই আমাদের সরকার পক্ষ ও বিরোধী দলীয় নেতৃবৃন্দ কতই না কথা বলছেন। এটা ঠিক হলে তো ওটা ঠিক না। আবার ওটা ঠিক হলে তো এটা ঠিক না। এই ভাবেই চলছে…. । চলবে। তবে আর কত দিন জানিনা! মধ্যবর্তী নির্বাচন সহ সরকার পতনে আগামী মে মাসে রাজপথ গরম করতে বিএনপি কঠোর আন্দোলনের আল্টিমেটাম দিয়েছে। সাথে থাকবে কয়েকটি শরীক দলও। অন্যদিকে সরকারও ক্ষমতা ধরে রাখতে স্বঅবস্থানেই অবিচল থাকবে? তাহলে কি সংঘাতের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ? সংঘাত, প্রাণহানি না হলে কি রাজনীতি জমে? এটাই রাজনীতির খেলা। রাজনীতিবিদরা বাসায় বসে বসে হুকুম জারি করবেন আর টেলিভিশন অন করে লাইভ দেখবে এটাই আমাদের রাজনীতির একটা কালচার। এর মধ্যে প্রাণ হারাবে নিরীহ মানুষ। তাতে কি?