ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

 

শেয়ার বাজার এর অস্থিরতা শুরু হওয়ার সময় থেকে ক্রমশঃ দেশের সার্বিক আর্থিক ব্যাবস্থাপনায় চাপ লক্ষ্য করা যাচ্ছে। কিন্তু একই সময়ে বৈদেশিক মূদ্রার স্থিতিতে অনাখাংকিত ও কিছুটা আশংকাজনক ঝাঁকি এবং ঊর্ধ্বমুখী মুল্যস্ফীতি দেশের সার্বিক অর্থ ব্যাবস্থাপনায় কালো মেঘের সঞ্চার করে।

কিন্তু এই ত্রিমুখি চাপ মোকাবেলায় যেভাবে সমন্বিত কার্যকরী পদক্ষেপের প্রয়োজন, তা ছিল সম্পূর্ণ অনুপস্থিত। বরঙ বিচ্ছিন্ন ভাবে নেয়া কিছু পদক্ষেপের (উল্লেখ করা নিষ্প্রয়োজন) ফলে বিপরীত ফলাফল লক্ষ্য করা গেছে।

পশ্চিমা বিশ্বের আর্থিক সংকটের ঢেউ এখানে কিভাবে প্রভাব ফেলবে তা নিয়ে দুশ্চিন্তা করার সময় ঠিক এখনি নয়। কিন্তু বিষয়টি মাথায় রেখে, আভ্যান্তরীন অর্থ ব্যাবস্থাপনায় সৃষ্ট অভিঘাত গুলো স্থানীয় ভাবে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হলে মূল অর্থনীতিতে এর কঠিন এবং সর্বগ্রাসী প্রভাব পড়বে।

অর্থ ব্যাবস্থাপনায় সঠিক এবং বাস্তব পদক্ষেপ নিতে নিতে সময় গড়িয়ে গেলে দেশ মহাবিপদের সম্মুখীন হবে এতে কোনো সন্দেহ নাই।