ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

 

আজ আমরা সত্যি কথা বলতে ভয় পাচ্ছি। আমরা মুক্ত, স্বাধীনই আছি। আমাদের হাত, মুখ বাঁধা নাই, আমাদের চিন্তার পথ অবারিত, আমাদের ভাবনার পরিধি অসীম। তবু আমরা এক রকমের আত্ম-বন্দিত্বের মধ্যে নিজেকে গুটিয়ে নিচ্ছি প্রতিদিন, একটু একটু করে। সত্য বলতে আমাদের প্রচণ্ড দ্বিধা। অসত্য, অর্ধসত্য, মন্দ, গ্লানির বিষয়গুলোকে আজ আমরা প্রত্যাখ্যান করতে অপারগ হয়ে পড়ছি।

বহুমুখী গন-মাধ্যমের প্রসার একসময় আম-জনতাকে ক্ষমতায়ন করবে বলে মানুষকে রোমাঞ্চিত করেছিল। কিন্তু আজ কেন জানি মনে হয়, সবাই এস্টাবলিশমেন্টের কাছে, কর্পোরেট গুলোর কাছে, বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছে, দল-মতাদর্শের কাছে, রাষ্ট্রযন্ত্রের কাছে, এমনকি স্বপ্রণোদিত রুলের কাছে ধীরে ধীরে আত্ম সমর্পণ করছে।

কোনও এক অদৃশ্য বাঁধনে বন্দি হয়ে যাচ্ছি আমরা সবাই, আমাদের মুক্ত চিন্তার নিষ্পাপ মন, নিরাবেগ বিবেক। দেশে আজ এমন “ব্যাক্তি-মানুষ” কিংবা “নৈর্ব্যক্তিক-প্রতিষ্ঠান” খুঁজে পাওয়া দুষ্কর যারা সত্যি সত্যিই “অনুরাগ আর বিরাগের” বশবর্তী হয়ে কাজ করে; “নিষ্ঠা আর একাগ্রতার সাথে” পরিচালিত হয়। আমরা নিজেরাই কিভাবে নিজেদের হাত পা বেঁধে, আত্ম বন্দিত্ব বরণ করেছি; বোবা-অন্ধ-বধির হয়ে গেছি; নির্বিবাদ দাসত্বের মন গ্রহন করেছি; তা বুঝতেও আমরা আজ অক্ষম।