ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

 

অসাধ্যকে সাধন করে প্রাথমিকে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেলো ফরিদগঞ্জের সাহাপুর গ্রামের এক কাঠুরিয়ার ছেলে শামিম!2016-04-20-15-15-32-881

না গল্প নয়। সত্যিই চমকে দিয়েছেন পুরো গ্রামকে শামিম। শামিম ২০১৫ সালের প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় ’এ’ পেয়েছিলো। গত ১৯ তারিখ সে বৃত্তি ও পেয়েছে,সাধারন নয়- ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি।

 

নিন্তাতই গরীবের ঘরের সন্তান শামীম।

পিতাঃ-আলী আকবর শেখ।

মাতাঃ- ফাতেমা বেগম।

 

শামিম সাহাপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন।তার এলাকাবাসী জানায় শামিম খুব মেধাবী ও সৎ একজন ব্যক্তি। স্কুলের শিক্ষকরা শামিমের প্রশংসায় পঞ্চমুখ।শিক্ষকরা বলেন শামিম এক মেধাবী, নম্র,ভদ্র ছাত্র। স্যারদের কথা কোনদিন অমান্য করেনি।

শামিম এবার কড়ৈতলী উচ্চ বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেনীতে অধ্যায়নরত ছাত্র। সেখানে ও সে সফলতার সাথে লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছে। শামিমের প্রতিবেশী এবং কড়ৈতলী উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী জনাব হারুনুর রশীদ বলেন ছেলেটা সত্যি অনেক মেধাবী। বাবা আকবর গাছের কাজ করে। গাছ কেটে সে অর্থ দিয়ে সংসার ও ছেলে-মেয়েদের পড়ালেখার খরচ চালান।

এ নিয়ে কড়ৈতলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জনাব সমেরেন্দ্র মিত্র বলেন,শামিমের এমন অর্জনের কথা শুনে আমরা আনন্দিত। আমি অনেক বিত্তশালীর সন্তানদের পড়ালেখা না করে খারাপ পথে যেতে দেখেছি। কিন্তু যখন শামিমদের মত মধ্যনিম্মবিত্ত ছেলেদের এমন সাফল্য দেখি তখন মনে আনন্দ পাই।

আসলে বিত্তবানদের একটু সহযোগিতা বদলে দিতে পারে এসব শিশুদের ভবিষৎ। এছাড়া তিনি ব্যক্তিগত ভাবে আমাদের ফরিদগঞ্জ নামক অনলাইন পত্রিকার প্রশংসা করে বলেন,পত্রিকাটি খুব ভাল খবর পরিবেশন করে। তিনি শামিমকে নিয়ে সংবাদ পরিবেশন করার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

মেধাবী সন্তান শামীমের এমন অর্জনে খুশি তার বাবা,মা, আত্মীয়স্বজন,পাড়া-প্রতিবেশী,স্কুলের শিক্ষক,শামিমের বন্ধু-বান্ধবরা। কথা হয় শামিমের সাথে, শামিম জানায় তাকে অনেক কষ্ট করে পড়তে হয়। বাবার কষ্ট সহ্য হয় না। বড় হয়ে বাবাকে এত কঠোর পরিশ্রম করতে দিবে না। সে জানায় সে অনেক পড়তে চায়।দেশের সর্বচ্চ শিক্ষা অর্জন করতে আগ্রহী।

এক অজপাড়া গাঁয়ের সন্তান শামিম।সবাই যখন সন্তানদের ভাল পড়ালেখা করাতে শহরমুখী করতে আগ্রহী। ঠিক তখন গরীবের সন্তান হয়ে ও শামিম চমক লাগিয়ে দিয়ে জানান দিলেন শিক্ষার কোন ভাল, খারাপ প্রতিষ্ঠানের উপর নির্ভর করে না।শিক্ষা নিজের মধ্যে থাকা অন্ধকারকে দূর করে।

এ নিয়ে আমাদের ফরিদগঞ্জের অনার রিফাত বলেন,শিক্ষা শুধু সার্টিফিকেট অর্জনের জন্য নয়। শামিম জানার জন্য,শেখার জন্য পড়েছে তাই সে সফল হয়েছে।

আমি প্রতিটি শিশুকে বলবো যেখানে ই পড়ালেখা করো না কেনো নিজেকে উজাড় করে দেও। সাফল্য কিঞ্চিত হলে ও ধরা দিবে।