ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

 

ভাগ্যের কাছে মাথানত করতে আমরা বাধ্য ! এই স্লোগানকে সাথে নিয়ে সামনে এগুতে হচ্ছে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর ও গ্রামীণ পরিকল্পনা (নগ্রাপ) ডিসিপ্লিন ফুটবল দলকে , কারন চলমান আন্তঃ বিশ্ববিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টে তাদেরকে ভাগ্যের কাছে হেরে গ্রুপ পর্যায় থেকে বিদায় নিতে হয়েছে ।

বরাবরের মত এবার তাদের গ্রুপ হয় সবচেয়ে শক্তিশালী, কিন্তু এই ব্যাপারটা তোয়াক্কা না করে নগ্রাপ ডিসিপ্লিন তাদের সর্বশক্তি দিয়ে প্রস্তুতি চালাচ্ছিল খুব ভালভাবে । কিন্তু যা হবার তা শুরু হল খেলা শুরু হবার ২-৩ দিন আগে থেকে, প্রবল বৃষ্টিতে মাঠের অবস্থা করুন, খেলা হবে কিনা এ ব্যাপারে সন্দেহ দেখা দিল । কিন্তু মাঠের করুন অবস্থাতেই খেলা শুরু হবে, তার মানে খেলা মানেই ভাগ্য । যেখানে থাকবেনা ভাল মন্দের ব্যাবধান ।

১০ জুলাই প্রথম খেলা হল নগ্রাপ বনাম এটি । যথা সময়ে খেলা শুরু হল, পুরো খেলা শেষে রেজাল্ট হল ১-১, মানে ড্র । খেলা চলে গেল পেনাল্টিতে এবং আবারও ভাগ্যের খেলা, এবারও হতাশ । জিতে গেল এটি ২-১ গোলে । সবার দৃষ্টি এখন পরবর্তী ম্যাচের দিকে ।

দ্বিতীয় খেলা ১২ জুলাই পদার্থ বিজ্ঞানের সাথে । এই দিন রোদের কারনে মাঠের অবস্থা ছিল ভালো, যার ফল দেখা গেল শুরু থেকেই । খুব দাপটের সাথে খেলে নগ্রাপ জিতে গেল ২-১ গোলে । গোল করল শাকিল ও সজিব । সবার ভিতর অন্য রকম আনন্দ বিরাজ করছিল যেন ভাগ্য আর তাদের সাথে অকল্পনীয় খেলা খেলবে না, কারন তারা হারতে শিখেনি ।

পরবর্তী খেলা ১৬ জুলাই নগ্রাপ বনাম এফডাবলুটি । পুরো খেলা শেষ হল 0-0 গোলে । কিন্তু আবারও পূর্বের অবস্থা পেনাল্টিতে হেরে গেল ২-১ গোলে । সর্বশেষ খেলা হবে এফএমআরটি-র সাথে । যেখানে যারা জিতবে তারাই কোয়ার্টার

ফাইনালে যাবে । এই খেলাই নগ্রাপ জিতবে এটাই স্বাভাবিক, কারন তারা এফএমআরটি-র চেয়ে কয়েকগুন ভালো খেলে । কিন্তু খেলা শুরু হওয়ার আগে বিরামহীন ১০ ঘণ্টার বৃষ্টিতে আবারও ভাগ্যের কাছে মাথা নত করতে হল নগ্রাপ ডিসিপ্লিনকে ।

ভাগ্যের কাছে আজ তারা বন্দি, তারা কি পারবে ভাগ্যের এই বেড়াজাল থেকে নিজেদের মুক্ত করতে ?