ক্যাটেগরিঃ ভ্রমণ

কর্ণফুলীর সেরা উপহার  কধুরখিল গ্রাম ঘুরতে গিয়ে এর মুগ্ধতায় ডুবেছি বারবার।

খানাখন্দক পেরিয়ে কালুরঘাট সেতু যেতে যেতেই ঘণ্টাখানেক। বরাবরের মত ব্যস্ত কালুরঘাটের দুই পাড়। কর্ণফুলী থেকে বেরিয়ে আসা খাল হয়ে  বালুভর্তি নৌকা চলে এই জলপথে। আমরা হেঁটে ব্রিজ পার হলাম।

সামনে যে খালগুলো আছে সবগুলোতেই হু হু করে পানি ঢুকছে। একটা সরু নৌকাতে তিন জন দ্রুত চলে গেল গ্রামের ভেতর।

পানি এত বাড়ছে যে বাড়িগুলো সব নিঃসঙ্গ দ্বীপের মতন। কোথাও কোথাও পানি রাস্তার উপর দিয়েও গড়িয়ে যাচ্ছে।

আমি ভেবে চলেছি তখনও – খালের ভেতর গ্রাম না গ্রামের ভেতর খাল?

কড়া রোদে হেঁটে ক্লান্তি পেয়ে বসল। বিশ্রাম নিতে বসলাম তাল পাতার ছাউনি দেওয়া বেঞ্চে।

এখান থেকে পুরো আকাশ আর পূর্ণ যৌবনা কর্ণফুলী দেখা যায়। একটু পর পর নৌকা ছুটে গেলে পানি এসে ধাক্কা খায় পাড়ের সাথে। ভিজিয়ে দেয় দুই পা।