ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

‘বৈশাখ নিয়ে আসে শান্তির বারতা, জীবন সতেজ হয় স্বস্তির আরো তা’  স্লোগানে বাংলা নববর্ষকে বরণ করে নিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) শুরু হয়েছে তিন দিনের বৈশাখী মেলা।

২০০৪ সাল থেকে জাবির ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের উদ্যোগে এই মেলার আয়োজন করা হচ্ছে উল্লেখ করে  ছাত্র -শিক্ষক কেন্দ্রের পরিচালক অধ্যাপক বশির আহমেদ মেলা নিয়ে বলেন, “প্রতিবারের মতো এবারো সফলভাবে বৈশাখী মেলার সুসম্পন্ন করা হবে।”

আগামীতেও এমন আয়োজনের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার আশা প্রকাশ করেন তিনি।

ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের উপ-পরিচালক নাসরিন সুলতানা বলেন,  “প্রতিবছর ৫০টি স্টল বরাদ্দ থাকে ক্রেতাদের জন্য। বেশ সাড়া পড়ে যায় উদ্যোক্তাদের মধ্যে। স্বল্প মূল্যে স্টল নিয়ে তারা তাদের হাতের তৈরি পণ্য এখানে প্রদর্শন করতে পারেন।”

 

 

 

 

 

মেলার বিভিন্ন স্টলে হাতে কাজ করা সালোয়ার-কামিজ, চাদর-শাড়ির পাশাপাশি ছিল চুড়ি-মালার পসরাও। বাদ যায়নি খাবার পণ্যও।

মেলায় শিশুদের জন্য নাগর দোলার আয়োজন রেখেছে কর্তৃপক্ষ।

    

 

   

 

এছাড়াও জহির আহমেদ অডিটোরিয়ামে  ‘কালারস অব লাইফ’ শিরোনামে চলছে আলোকচিত্র প্রদর্শনী। ট্রান্সপোর্ট চত্বরে চলছে নির্বাণ প্রকাশন আয়োজিত সতীর্থ বইমেলা-২০১৯।

বৈশাখের এই আয়োজন চলবে আগামী সোমবার পর্যন্ত। সেদিন সন্ধ্যা ৬টায় বাউল গান পরিবেশন করবেন আবুল ফকির ও তাঁর দল ।

গত শনিবার বিকেল ৪টায় জাবির ক্যাফেটেরিয়া চত্বরে  এই বৈশাখী মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য  অধ্যাপক ড. ফারজানা ইয়াসমিন,  প্রো উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. মো. নূরুল আলম,  প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক  ড. মো. আমির হোসেন,  কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শেখ মো. মঞ্জুরুল হক।

পহেলা বৈশাখের দিন বিকেল সাড়ে ৪টায় সেলিম আল দীন মুক্তমঞ্চে ছিল সাংস্কৃতিক আয়োজন।

মন্তব্য ১ পঠিত