ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

আমি জানি না একটি দেশ পরিচালনা করতে কত বুদ্ধি লাগে, তবে জনগণের ভোট প্রয়োজন হয় যদি গণতান্ত্রিক সরকার হয়। মিডিয়া এখন গণতন্ত্রের বড় একটি স্তম্ভ। কোন ক্ষমতাবান ব্যক্তি যদি কলা খাওয়ার পরে বলেন উনি লম্বা চিকন জাতের আম খেয়েছেন, তাহলেও জনগণ বিশ্বাস করবেন না, কারণ একটু পরে হয়তো কোন চ্যানেলে দেখাবে , উনি কোন দোকান থেকে কলা কিনেছেন/কিনিয়েছেন/উনার জন্য কেউ কিনেছে , তারপর কলার খোসা কোথায় ফেলেছেন।

জনগণের চোখে ধুলা দেওয়া সম্ভব নয়, আমাদের ক্ষমতাবান ব্যক্তিরা বা অন্য দলের নেতারা কেন বোঝেন না? উনারা কি তাহলে শিক্ষায়, জ্ঞান গরিমায়, প্রযুক্তিতে অনেক পিছিয়ে। লিমনের পায়ে গুলি করা হয়েছে, আবার পা হারা ঐ যুবকের বুরুদ্ধে একাধিক মামলা করা হয়েছে। দেশের মানুষ কি এটা বোঝে না? এটা কি র‌্যাব/স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী বোঝেন না। আপনারা যদি ব্যাবের সদস্যদের রক্ষা করতে চান বা এটা ব্যাবের সদব্যদের ভূল হয়ে থাকে তাহলে রাষ্টীয়ভাবে লিমনের নিকট ক্ষমা চান এবং তাকে পর্যাপ্ত ক্ষতিপুরনের ব্যবস্থা করুন।

এর আগে একুশে আগষ্টের বোমা হামলার ঘটনায় বি এন পি সরকার জর্জ মিয়া নাটকের অবতারণা করেছে। মিডিয়ার কল্যাণে দেশবাসী বুঝতে পেরেছেন, বি এন পি জনগণের চোখকে ধুলা দিতে পারেনি। জামাতের নেতারা বলেছেন, তারা নাকি মুক্তিযুদ্ধের সময় দেশের ও দেশের মানুষের কোন ক্ষতি করেননি। একথা বলে তারা কি জনগণকে ভুল বোঝাতে পেরেছেন? হরতালের পর বিরোধী দল বলে দেশবাসী স্বতস্ফুর্তভাবে হরতাল পালন করেছে , আর সরকারি দল বলে দেশবাসী হরতাল প্রত্যাখ্যান করেছে। আসল ঘটনা তো জনগন জানে।

আমাদের দেশের অনেকে টাকার বিনিময়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সভা সমাবেশে যায়, এবং টাকার নিনিময়ে তারা সব দলের জনসভাতেই যায়, আমাদের দেশের মানুষ এটা ভালভাবেই জানেন। সরকারি দল সব সময় বিরোধী দলকে তুর্কি নাচন নাচাতে চায়। এভাবে ক্ষমতার পালাবদলে সবাই নাচে। ক্ষতিগ্রস্ত হয় দেশ, দেশের অর্থনীতি। বিরোধী দল এবার সংসদের প্রথম অধিবেশন থেকে বের হয়ে বলল তাদের সামনের সারিতে পর্যাপ্ত ছিট দেওয়া হয়নি বলে তার অধিবেশনে যোগদান করবে না। আমরা বুঝি না রাজনীতিবিদদের বুদ্ধি এত কম কেন এসব ক্ষেত্রে। একটি সংসারের মালিক তার সংসারের জন্য দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা করেন, আমাদের রাষ্ট্রনায়কেরা কি তা করেন?

বিরোধী দল ও সরকারী দলের নেতারা বিদেশী কুটনৈতিক ও রাষ্ট্রপ্রধানদের নিকট নালিশ করেন একে অপরের বিরুদ্ধে। বিশ্বব্যাংক, আই এম এফ ইচ্ছামত দেশের কলকারখানা বন্ধ করায়, নতুন আইন করায় আমাদের দিয়ে, এমনকি যা ইচ্ছা তাই করেন। হায়রে নেতা ও রাষ্ট্রনায়কেরা, আপনারা একটু ভাল বুদ্ধি কাজে লাগান দেশের জন্য। দেশ/দল চালাতে কি খুব বেশি বুদ্ধির প্রয়োজন?