ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

আমরা সাধারণ জনগন আজ মহা আতঙ্কের মধ্যেই আছি বলে মনে হয়, আমরা ক্ষমতার যেতে পারলে অন্ধ হয়, প্রথমত ১২ তারিখ বিএনপি বা ৪ দলিয় জোটের সমাবেশ. সন্ত্রাস নিয়ন্ত্রন করার অধিকার সরকারের আছে.. তবে আশঙ্কা থেকে সরকার পদক্ষেপ নিল সেটা শুধু বিএনপি বা ৪ দলিয় জোটের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য হবে সরকারী দলের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না এটা আমাদের কোন ধরণের নীতি. সরকার শুধু একাট সমাবেশকে কেন্দ্র করে প্রশাসন, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ততা সরকারী দলিয় নেতারা যে ভাবে একযোগে রাজপথে তাতে আগামী নিবাচনের সময় তারা ক্ষমতায় থাকলে নিরপেক্ষ পরিবেশ বজায় থাকার আশা কোথায়.

অতীত ও আমরা দেখি যে, ১৯৯১ সনের আগে সামকির শাসনের বিরুদ্ধে বিএনপি আওয়ামীলীগ আন্দোলন।

আওয়ামীলীগ ১৯৯৬-২০০১ সে সময় প্রতিপক্ষ দমনে নৃশংস হামলা ঘটানো হয় যেমন: উদীচীর সঙ্গীতসন্ধ্যা, কমিউনিষ্ট পাটির জনসভায় (পল্টন), রমনা পার্কে পহেলা বৈশাখ।
বিএনপি বা ৪ দলিয় জোটে ২০০১- ২০০৬ সে সময় প্রতিপক্ষ দমনে নৃশংস হামলা ঘটানো হয় যেমন: ২১ আগষ্ট, কিবরিয়া হত্যা সহ অনেক ঘটনা।
আসুন আমরা দল বা জোটের কথা চিন্তা না করে ক্ষমতা লোভ অন্ধ না হই, আমরা আশা রাজনীতিকদের শুভবুদ্ধির উদয় হবে সরকার ও বিরোধী পক্ষ সমঝোতার মাধ্যমে আলোচনার টেবিলে সমাধান হবে