ক্যাটেগরিঃ ব্লগালোচনা

 

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ব্লগে “একুশে বই মেলায়” ব্লগারদের লেখা নিয়ে হতে পারে বই প্রকাশ! শিরোনামে গত ৩০ অক্টোবর ২০১১ ইং তারিখে একটি পোষ্টের মাধ্যমে সামনের ২০১২ একুশে বই মেলায় একটি বই প্রকাশের আগ্রহ নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছিলাম। আমি অত্যান্ত আনন্দের সাথে জানাচ্ছি ঐ আবেদনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে ইতিমধ্যে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ব্লগের সদস্যদের মধ্যে প্রচুর ব্লগার সাড়া দিয়েছেন।

লিংক প্রদান,মন্তব্য,পরামর্শ এবং সহযোগিতার মাধ্যমে আমাকে সার্বক্ষনিক সহযোগিতাই প্রমান করে একুশে বই মেলা ২০১২ তে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ব্লগের সদস্যদের লেখা নিয়ে বই প্রকাশে আপনাদের সকলের অভিব্যক্তির প্রকাশের আন্তরিকতা। ঘোষনাকৃত সময়ের মধ্যে প্রস্তাবিত সকল লেখার শিরোনাম ও লিংকের তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে যথাসময়ে। প্রাথমিক ভাবে সকল লেখার লিংক থেকে ২০-২৫ টি ( প্রত্যেক সদস্যের নিজিস্ব বিবেচনায়) ভাল লেখা বাছাই পূর্বক আমাদের এই উদ্দেগকে সফলতার স্বর্ন শিখরে পৌছাতে আরো একধাপ এগিয়ে নিতে প্রথমিক বাছাই কমিটির সদস্যদের করতে হবে কষ্ট সাধ্য পরিশ্রম। আমি আশা করি এই ব্লগের সকল সদস্যের আশা আকাংখার যথাযথ মুল্যায়ন করতে সম্মানিত বাছাই কমিটির সদস্যগন নিজ দায়ীত্ব পালনে একচুলও পিছপা হবেন না।

প্রাথমিক বাছাই কমিটির সম্মানিত সদস্যবৃন্দ (চুরান্ত)
১. নুরুন্নাহার শিরীন
২. নাজনীন খলিল
৩. ম,সহিদ
৪. মামুন ম আজিজ
৫. অন্যমাত্রা
৬. মোত্তালিব দরাবারি
৭. নাহুয়াল মিথ

এই পর্যন্ত প্রাপ্ত লেখার লিংকের সম্পুর্ন তালিকা পাঠানো হবে প্রাথমিক বাছাই কমিটির প্রত্যেক সদস্যদের কাছে । বাছাই কমিটির সদস্যরা তালিকা থেকে লেখার প্রাথমিক বাছাই তালিকা তৈরী করবেন। প্রাথমিক তালিকা তৈরীতে কমিটির প্রত্যেক সদস্যগন নিন্মোক্ত বিষয়গুলি অত্যান্ত গুরুত্বের সাথে অনুসরন করার অনুরোধ করা যাচ্ছে।

১. কমিটির প্রত্যেক সদস্যের নিজস্ব বিবেচনায় বাছাইকৃত ২০-২৫টি লেখার প্রাথমিক তালিকা প্রস্তুত করতে হবে
২. একই ব্লগারের সর্বোচ্চ দুই’টি লেখা প্রাথমিক বাছাইয়ে রাখা যাবে
৩. বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লিখিত পোস্টগুলোকে তুলে ধরার প্রচেষ্টায় বাছাই তালিকায় লেখার বিষয়বস্তুর বৈচিত্র্যতার দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে
৪. প্রত্যেক সদস্যকে প্রাথমিক বাছাই তালিকা জমা দিতে হবে সাতদিনের মধ্যে অর্থাৎ আগামী ২৫-১১-২০১১ ইং এর মধ্যে।
৫. প্রাথমিক বাছাই কমিটি মনোনীত লেখার তালিকা উন্মুক্ত করবে না

প্রাথমিক বাছাই কমিটির সদস্যদের প্রত্যেকের তালিকায় উল্লেখিত লেখা নিয়ে একটি পূর্নাঙ্গ তালিকা প্রস্তুত করা হবে। এই পূর্ণাঙ্গ তালিকা চূড়ান্ত বাছাই কমিটির কাছে দেয়া হবে এবং চূড়ান্ত বাছাই কমিটি তালিকা থেকে লেখার চূড়ান্ত বাছাই সম্পন্ন করবেন। চূড়ান্ত বাছাই কমিটিও মনোনীত লেখার তালিকা উন্মুক্ত করবে না।

প্রাথমিক বাছাই সম্পন্ন হওয়ার পর চূড়ান্ত বাছাই কমিটির নাম এবং আমাদের কাজের অগ্রগতি সহ বিস্তারিত জানানো হবে ৩য় আপডেটের মাধ্যমে। চূড়ান্ত বাছাই কমিটি এক সপ্তাহ সময় প্রাপ্ত হবেন মনোনীত লেখার চূড়ান্ত তালিকা নির্ধারণে। চূড়ান্ত বাছাই কমিটির প্রত্যেক সদস্যদের কাছ থেকে আলাদা আলাদাভাবে প্রাপ্ত তালিকা থেকে একটি পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রস্তুত হবে (অধিক সদস্যের পছন্দের ক্রমানুসারে) এবং চূড়ান্ত বাছাইয়ে একজন ব্লগারের একটি লেখাই চুরান্তভাবে বাছাই করা হবে।

চূড়ান্ত বাছাই কমিটি কর্তৃক চূড়ান্ত লেখা বাছাই সম্পন্ন হলে, বাছাইকৃত লেখার প্রাথমিক সম্পাদনা সম্পন্ন করা হবে। চূড়ান্ত বাছাই সম্পন্ন হওয়ার পর প্রাথমিক সম্পাদনা কমিটি তৈরী হবে ও সদস্যদের নাম এবং কাজের অগ্রগতি জানিয়ে ৪র্থ আপডেট প্রদান করা হবে।

প্রাথমিক সম্পাদনা কমিটি মুদ্রনবান্ধবতা সাপেক্ষে (যেহেতু ব্লগের লেখাগুলো ইউনিকোডেড, যা মুদ্রণ উপযোগী নয়)লেখার ফন্ট রূপান্তর করবেন। সম্পাদনা কমিটি লেখার পরিমার্জনা, সম্পাদনা (বিশেষত বানান) সম্পন্ন করবেন। ব্লগারদের পরামর্শ ও প্রস্তাবনার বিপরীতে প্রাথমিক সম্পাদনা কমিটি বইয়ের নাম বিষয়েও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।

প্রাথমিক সম্পাদনা শেষে চূড়ান্ত সম্পাদনার জন্য পান্ডুলিপি জমা দেয়া হবে প্রকাশকের কাছে।

এই পোষ্টের মন্তব্যের ঘরে বইয়ের নাম প্রস্তাব,আপনার সুচিন্তিত যে কোন পরামর্শ এবং আপনার অভিব্যাক্তি প্রকাশ করা এবং যে কোন ত্রুটি বিচ্যুতি ধরিয়ে সহযোগিতার হাত প্রসারিত করার জন্য বিডি ব্লগের সকল সদস্যের প্রতি উদার্ত আহ্বান করা যাচ্ছে।

“একুশে বই মেলায়” ব্লগারদের লেখা নিয়ে হতে পারে বই প্রকাশ!