ক্যাটেগরিঃ গণমাধ্যম

index

অনলাইন নিউজ ডটকম এ পর্যন্ত নিবন্ধিত বাংলাদেশের অনলাইন নিউজ পোর্টাল এর সংখ্যা ১৯৯ টি  (http://www.onlinenewspapers.com/banglade.htm) । শুরুর দিকে যখন অনলাইন নিউজ পোর্টাল ব্যাঙের ছাতা হয়ে উঠেনি তখন বিডিনিউজের মত পোর্টাল জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে গেল । ব্যস শুরু হয়ে গেল ব্যাঙের ছাতা গজানো । আজকাল সামাজিক মাধ্যম গুলোতে না চাইলেও কিছু অনলাইন নিউজ পোর্টাল এর লিংক চোখে পড়ে । তাঁদের খবরের শিরোনাম দেখে বাংলাদেশে মানসিক স্বাস্থ্য সেবা অপ্রতুল এই কথাটা মনের মধ্যে ফিরে আসে আর নিজেকে শান্ত করি । দাম্পত্য জীবন এর একান্ত ব্যক্তিগত মুহুর্তের নানা দিক তাঁদের শিরোনাম হয় , হঠাৎ করে কোন শীর্ষ স্থানীয় নায়কনায়িকার গোপন ভিডিও তাঁরা পেয়ে যায়, কাকে বিয়ে করতে হয়, কাকে হয় না এসব তারা জানে।  ভদ্র মেয়ের/ছেলের ৫ লক্ষণ এসবও তাঁদের সংবাদ । কিছু নিউজের শিরোনাম এমন থাকে যা স্ক্রিনে ভেসে থাকলে রুমে অন্য কেউ এসে পড়লে খুবি বিব্রত হতে হয় । বানিয়ে বানিয়ে খবর প্রচারে তারা একদমই নিরলস ।  বানোয়াট খবরের সে কি বাহার , এর কিছু নমুনা –

ঘটনা ১- একদিন একটা খবর দেখলাম ডিম নাকি সিগারেটের মতোই ক্ষতিকর । কিছুই করলাম না শুধু এই লিংক টা তাঁদের কমেন্টে (http://www.eggs.ca/nutrition/view/1/egg-nutrition) দিলাম। আর এই নিউজ দেখে শুধু মাত্র ডিম খেয়ে ডেইলি প্রোট্রিন এর প্রায় অর্ধেকটা যারা মিটিয়ে নিতেন তাঁরা ডিম খাওয়া ছেড়ে দিলেন ।
ঘটনা -২  এক বন্ধু তার ছোট বোনকে নিয়ে রিকশায়, বোনের কলেজ ড্রেসে  হাতে ছিল ফুল, জন্মদিনে বান্ধবীদের দেয়া উপহার । কোথা থেকে কেউ ছবি তুলে এক অনলাইন পত্রিকা নিউজ করে দিলো । কলেজ ফাঁকি দিয়ে রাজধানীর কলেজ পড়ুয়া ছাত্রছাত্রীরা পার্কগুলোতে অসামাজিক কাজে লিপ্ত । ছবি হিসেবে তিনটা ছবির মাঝে একটা ছবি ছিল তাঁদের। এরপর বিব্রত বন্ধুটি বোনের সাথে একই রিকশায় আর উঠবে কিনা জানতে চাওয়া হয়নি ।

প্রশ্ন হলো এসব নিয়ন্ত্রণ করার কি কেউ নেই ? আমাদের হাজার রকম আতংকে দিন কাটে সেখানে এ এক নতুন আতংক যুক্ত হলো যেন ।  আর খুব সাধারণ বাঙালিরা খুব সহজেই এইসব খবর বিশ্বাস করে ফেলছে , শেয়ার এ শেয়ার এ ছড়িয়ে দিচ্ছে আরো হাজার হাজার মানুষের মাঝে । একটা মিথ্যা প্রবাহিত হতে থাকলে একসময় তা সত্য বলে মনে হয় । অসত্য খবরের আড়ালে সত্য খবর গুলো হারিয়ে যায় । এভাবে আর কয়দিন ?