ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

 

১২ই মার্চ কে সরকার কেন এত ভয় পাচ্ছে সেটা আসলে কিছুতেই বোধগম্য হচ্ছে না ,সরকার যেভাবে একে একে কর্মসূচী নিচ্ছে তাতে বোঝা যাচ্চে যে উপদেষ্টাদের উপদেশের ভারে সরকার ভারাক্রান্ত ,মাথাভারী উপদেশের কারনে নতুন নতুন কৌশল অবলম্বন করছে ,আজ দেখলাম মতিঝিল সহ সব এলাকার হোটেলগুলোতে তালা মেরে দেয়া হয়েছে আগামী দুদিন খাবার হোটেল গুলো নাকি বন্ধ থাকবে তাহলে বাকী থাকল শুধু পাবলিক টয়লেটে তালা মারা .সরকারের চিন্তা করা উচিত যারা বিএন পির এই কর্মসূচিতে আসবে তাদের সংখ্যা ঢাকা শহরে যারা জীবিকার তাগিদে থাকে তাদের তুলনায় অতি নগন্য ,তাই এই নগন্য অংশের জন্য সকলের অসুবিধা সৃষ্টি করে কি আগামী নির্বাচনে ভালো ফলাফল আশা করাটা কি ঠিক হবে .এরপর হয়তো দেখবো পেট্রোল পাম্প এবং সিএনজি ষ্টেশন গুলো ও বন্ধ করে দেবে অতি উৎসাহীদের কেই কেই হয়তো এরকম উপদেশ ও দিতে পারে যে মেঘনা ,যমুনা ভৈরব ব্রিজ সংস্কারের নামে বন্ধ করে দেয়া হোক কিংবা মাইন দিয়ে উড়িয়ে দিলেই তো অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে যায় ,তাই এই সব সুসময়ের উড়ে এসে জুড়ে বসাদের থেকে সাবধান থাকতে হবে সরকারকে নিজেদের স্বার্থেই .