ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

শনিবার গুলশানস্থ ওয়েস্টিন হোটেলে এ নিয়ে চুক্তিস্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়। প্রায় সাড়ে তিনশ’ কোটি টাকায় ছয় বছরের জন্য বিপিএল স্বত্ব কিনে নেওয়া গেম অন স্পোর্টস ম্যানেজমেন্টের পরিচালক অঞ্জন গাঙ্গুলী ও ডেসটিনি গ্র“পের চেয়ারম্যান রফিকুল আমীন নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তি পত্রে স্বাক্ষর করেন।

এক বছরের জন্য সাড়ে সাত কোটি টাকায় বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) টাইটেল স্পন্সর কিনে নিয়েছে ডেসটিনি গ্র“প। গ্র“পটি তাদের নামের সঙ্গে নিজস্ব প্রতিষ্ঠান বৈশাখী টেলিভিশনকেও যুক্ত করেছে। চলতি বছরের বিপিএল টুর্ণামেন্টটির নামকরণ হচ্ছে ‘ডেসটিনি-বৈশাখী বিপিএল টি২০’।

শনিবার গুলশানস্থ ওয়েস্টিন হোটেলে এ নিয়ে চুক্তিস্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়। প্রায় সাড়ে তিনশ’ কোটি টাকায় ছয় বছরের জন্য বিপিএল স্বত্ব কিনে নেওয়া গেম অন স্পোর্টস ম্যানেজমেন্টের পরিচালক অঞ্জন গাঙ্গুলী ও ডেসটিনি গ্র“পের চেয়ারম্যান রফিকুল আমীন নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তি পত্রে স্বাক্ষর করেন।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বিপিএলের গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান গাজী আশরাফ হোসেন লিপু, সদস্য সচিব সিরাজউদ্দিন মোহাম্মদ আলমগীর, ডেসটিনি গ্র“পের ভাইস প্রেসিডেন্ট গোফরানুল হক, বৈশাখী টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, বিপিএলের টিভি স্বত্ব কিনে নেওয়া চ্যানেল ৯’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক এনায়েতুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

ডেসটিনি গ্র“পের চেয়ারম্যান বলেন, ভারত বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহার করে বিশ্ববাসীর কাছে নিজেদের দেশের নামটি ছড়িয়ে দিচ্ছে। দেশটির তেমনই একটি মাধ্যম হচ্ছে আইপিএল (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ)। যে টুর্নামেন্ট সারাবিশ্বে আলোড়ন ছড়িয়েছে। এই টুর্নামেন্টের আদলেই এখন ক্রিকেট বিশ্বের সঙ্গে সংযুক্ত প্রতিটি দেশেই টুর্নামেন্ট করার চেষ্টা হচ্ছে।

বাংলাদেশও সেইরকমভাবে বিপিএল আয়োজন করতে যাচ্ছে। ১০ ফেব্র“য়ারি টুর্নামেন্ট শুরু হবে। শেষ হবে ২৯ ফেব্র“য়ারি। এই টুর্নামেন্টের মাধ্যমে বাংলাদেশও নিজেদের দেশের নাম বিশ্ববাসীর কাছে ছড়িয়ে দিতে সক্ষম হবে। আর তাই দেশের সঙ্গে নিজেদের নামটি জড়িয়ে নিজেরাও পরিচিত হতেই বিপিএলের সঙ্গে সংযুক্ত হয়েছে ডেসটিনি গ্র“প।

প্রথমবারের মত দেশের মাটিতে এত বড় আয়োজন হতে যাচ্ছে। সেই আয়োজনে ব্যবসায়িক দিকও আছে। সেটি বুঝিয়ে দিলেন চ্যানেল ৯’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক। তিনি বলেন , ‘এখানে বিশ্ববাসীকে নিজের দেশকে পরিচিত করার সঙ্গে ব্যবসায়িক দিকও আছে। চ্যানেল ৯ বিপিএলের সঙ্গে যুক্ত হয়ে নিজেদের চেনাতে চায়। সঙ্গে ব্যবসায়িক হিসাবও জড়িত। এখানে অংশ নেওয়া ক্রিকেটারের সংখ্যা প্রচুর। তাদের সবার আর্থিক নিশ্চয়তা থাকছে। তাতে ক্রিকেটাররা লাভবান হচ্ছে। আগামীতে আরও ক্রিকেটার যুক্ত হবে। বাংলাদেশ প্রথমবারের মত কোন বিদেশি চ্যানেলের (ইএসপিএন) কাছে টিভি স্বত্ব দিয়েছে। চ্যানেল ৯ থেকে নিয়ে ইএসপিএন বিপিএলের সবগুলো খেলা দেখাবে। এরসঙ্গে পাকিস্তান, ইউরোপ, ইউকে, আমেরিকাতেও কথা চলছে। সেখানেও বিপিএলের খেলা দেখানোর ব্যবস্থা হবে।’

এই টাইটেল স্পন্সর বিক্রি থেকে গেম অন স্পোর্টস ম্যানেজমেন্ট বড় অংকের অর্থ পাবে। সাড়ে সাত কোটি টাকার ৬০ শতাংশ পাবে গেম অন স্পোর্টস। আর ৪০ শতাংশ থেকে বিপিএলে অংশ নিতে যাওয়া ছয়টি দল ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরস, চিটাগাং কিংস, খুলনা রয়্যাল বেঙ্গলস, সিলেট রয়্যাল, বরিশাল বার্নার্স এবং দূরন্ত রাজশাহী সমান ভাগ পাবে। বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিল অর্থাৎ বিসিবির ভান্ডারে কোন অর্থ এখান থেকে জমা হবে না। তা জানালেন বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব সিরাজউদ্দিন মোহাম্মদ আলমগীর, ‘টিকেট স্বত্ব বিক্রি থেকে শুধু গেম অন স্পোর্টস পুরো অর্থ পাবে। আর টাইটেল স্পন্সর বিক্রি করে গেম অন স্পোর্টস চুক্তি অনুযায়ী ৬০ শতাংশ অর্থ পাবে। আর বিপিএলে অংশ নেয়া দলগুলোকে ৪০ শতাংশ থেকে সমান ভাগে অর্থ ভাগ করে দেওয়া হবে।’

এই টাইটেল স্পন্সর কিনে নেয়ার বিপরিতে চুক্তি অনুযায়ী বিপিএলের অফিশিয়াল লোগোতে ডেসটিনি গ্রুপের নাম যুক্ত থাকবে। আর কোন নাম সেখানে যুক্ত হতে পারবেনা। সঙ্গে থাকবে বিলবোর্ডের সুবিধা।

কামাল শাহরিয়ার, বিডি24live.কম এর বিশেষ প্রতিনিধি