ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

 

ক্রিমিয়ার পথ ধরে এবার ডোনেটস্ক রাশিয়ার সাথে একীভূত হওয়ার ঘোষণা দিলো(অডিও)

 

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ-লন্ডন থেকে

 

রাশিয়ার স্থানীয় মিডিয়া ইতার তাস আজকে জানিয়েছে, ক্রিমিয়ার পথ ধরেই ইউক্রেনের সিটি “ডোনেটস্ক আজকে নিজেদের স্বাধীনতা ঘোষণা করেছে” এবং রাশিয়ার সাথে জয়েন করার জন্যে আগামী মে মাসের ১১ তারিখ রেফারেন্ডামের তারিখ ঠিক করে আইন পরিষদে ঘোষিত হয়েছে।

স্থানীয় সরকারের প্রশাসনিক ভবন সমূহ গত রাতেই রাশিয়ার পক্ষের এক্টিভিষ্টদের দ্বারা নিয়ন্ত্রণে নিয়েছেন এবং ডোনেটস্ক এর নাম পিপলস রিপাবলিক নাম দিয়ে নিজেদের স্বাধীনতা ঘোষণা করেছে। ইতার তাস এই খবর নিশ্চিত করেছে। ব্রিটেনের ইন্ডিপেন্ডেন্ট এবং বিশ্বের অন্যান্য প্রভাবশালী মিডিয়াও আজ সকালে ইতার তাসের পরিবেশিত খবর গুরুত্ব দিয়ে প্রকাশ করেছে।

ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রী এই সংবাদের প্রেক্ষিতে নিজের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলছেন, দেশটির পূর্বাঞ্চল এলাকায় রাশিয়ার দখল দারিত্ব নেয়ার পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই ডোনেটস্ক স্বাধীনতা ঘোষণা করেছে-“যা আমরা কিছুতেই এলাও করবোনা”

ডোনেটস্ক রিজিওনাল কাউন্সিল শুরুতেই নিজেদের স্বাধীন ঘোষণা করে ডিক্লারেশন পাশ করেন, যাতে বলা হয়, “ডোনেটস্ক পিপলস রিপাবলিক হিসেবে পরিগণিত হবে”

ঠিক তারপরেই কাউন্সিলের আইন প্রণেতাগণ ঐক্যমতের ভিত্তিতে পাশ করেন আগামী “১১ মে রাশিয়ান ইউনিয়নের সাথে যোগ দেয়ার জন্যে রেফারেন্ডামের”

ইউক্রেনের ভারী শিল্পাঞ্চল শহর ডোনবাসের পূর্বাঞ্চল এরিয়া হলো এই ডোনেটস্ক, যেখানে অধিকাংশ কিয়েভের শিল্প এলাকা এবং গত রাতে রাশিয়ান এক্টিভিষ্টদের দ্বারা ইউক্রেনের সকল স্থানীয় প্রশাসনিক ভবন দখলে নিয়ে রাশিয়ান ফ্ল্যাগ উড়িয়ে “রাশিয়া” “রাশিয়া” শ্লোগান শুনা গেছে বলে তাস জানিয়েছে।

ইউক্রেনের প্রাইম মিনিস্টার ইয়াটসেনউক অভিযোগ করেছেন “রাশিয়ান সৈন্য তার দেশের ঐ অঞ্চলের বর্ডার এলাকার ত্রিশ কিলোমিটারের মধ্যে ঢুকে পড়েছে”।

এদিকে গত রাতে রাশিয়ার এক সৈন্য ইউক্রেনের নেভীর এক কমান্ডারকে গুলি করে হত্যা করার পর ইউক্রেনের প্রাইম মিনিস্টার রাশিয়ার ট্রুপস সম্পর্কে এমন মন্তব্য করলেন।

ইউক্রেনের ইন্টেরিয়র মিনিস্টার আজকে রিপোর্ট করেছেন, “পশ্চিমাঞ্চলের ২৫ কিলোমিটারের মধ্যে এসে রাশিয়ার ট্রুপস ইউক্রেনের লোহান্সক সিটিতে অবস্থান নিয়ে প্রভিন্সের সিকিউরিটি সার্ভিসের ভবন দখলে নিয়েছে”।

ইউক্রেনের লার্জেস্ট সিটি খারকিভের প্রভিন্সিয়াল বিল্ডিং রাশিয়ান ট্রুপসের দ্বারা ধ্বংস সাধিত হয়েছে বলে অপর এক সংবাদ সূত্রে জানা গেছে।

ইস্টার্ণ ইউরোপের এই ডেভেলপম্যান্টের ব্যাপারে জার্মান সরকার “খুব উদ্বেগ প্রকাশ” করে বিবৃতি প্রকাশিত হয়েছে।

জার্মান চ্যান্সেলর এঞ্জেলা মার্কেল ডোনেটস্ক এবং খারকিভের ঘটনাবলীর প্রেক্ষিতে খুবই উদ্বেগ প্রকাশ করে বলছেন, “ জরুরী ভিত্তিতে আমাদের এপিল পূণর্বিবেচনা করে দেখা উচিত যাতে এই অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় থাকে”

(ইতার তাস মিডিয়া অবলম্বনে)

Salim932@googlemail.com

07 April 2014,London