ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

ডেভিড ক্যামেরনের সতর্কবাণীঃইরাকের জঙ্গি মিলিট্যান্টরা ব্রিটেনে আঘাত হানবে

 

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ- যুক্তরাজ্য থেকে

 

 

জঙ্গি মিলিট্যান্ট সন্ত্রাসী ও সিরিয়ার আইএসআইএস বাগদাদের দিকে অগ্রসর হচ্ছে, একই সাথে তারা পরিকল্পনা করছে ব্রিটেনে আঘাত হানার। আজ ন্যাশনাল সিকিউরিটি সার্ভিসের উচ্চ পর্যায়ের মিটিং এ এই সতর্ক বানী উচ্চারণ করলেন।

 

এটা বহুলভাবে এখন বিশ্বাস করা হয় যে ৪০০র বেশী ব্রিটিশ নাগরিক বর্ডার ক্রস করে সিরিয়ার মিলিট্যান্ট আইএসআইএস এর সাথে যুদ্ধে যোগ দিয়েছে এবং মন্ত্রীরা বিশ্বাস করেন এর ফলে এদের সহায়তায় এই মিলিট্যান্টরা এখন নর্দার্ন ইরাক দখলে নিয়েছে।

 

সরকার আজ এক ফিগার প্রকাশ করেছে যাদের সিরিয়া রিলেটেড ব্রিটিশদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ২০১৩ সালে গ্রেপ্তারের এই সংখ্যা ৬৫ এবং এই বছরের প্রথম তিন মাসে ৪০ এর মতো গ্রেপ্তার করা হয়েছে ইউকেতে।

 

সিকিউরিটি সার্ভিসের এক্সপার্টরা আজকের সভায় শঙ্কা প্রকাশ করেছেন এদের অধিকাংশ ব্রিটেনে আবার ফিরে এসেছে যারা সিরিয়া ও ইরাক যুদ্ধে অংশ নিয়ে সেই সব সন্ত্রাসী টেকনোলোজি রপ্ত করেছে, ফলে এরাই ব্রিটেনে আঘাত হানার পরিকল্পনা নিয়েছে বলে গোয়েন্দা তথ্য রয়েছে।

 

ব্রিটিশ সরকার ইতিমধ্যে যুদ্ধের ডেঞ্জার জোন খ্যাত দেশ ও স্থান সমূহে যারা ভ্রমণ করতে চান তাদের আটকে দিয়েছেন, অনেককেই সতর্ক করে দিয়েছেন, যাতে সেই টেরোরিষ্টদের এরিয়াতে ভ্রমণ না করেন।

 

সন্ত্রাসী যুদ্ধের জোনে যারা ভ্রমণ করেছেন, তাদেরকে প্রসিকিউট করার কথা সরকার ভাবছে, এ নিয়ে আইন প্রণয়নের জোর তাগিদ সরকারের ভিতর থেকে আসছে।

 

প্রধানমন্ত্রী সিকিউরিটি সার্ভিস ও এমপি-মন্ত্রীদের অবহিত করেন, যারা মনে করছেন, ইরাকের এই সন্ত্রাসী জঙ্গি যুদ্ধ আমাদের চিন্তার কোন কারণ নাই, এবং সেটা কেবল মধ্যপ্রাচ্যের ইরাকের অধ্যুষিত এলাকায় সন্ত্রাসী হামলা, তাহলে তারা বড় ভুল করছেন, কেননা আমি মনে করি এতে আমরাও এফেক্টেড হবো।

Iraq

ডেভিড ক্যামেরন তাদের আরো অবহিত করেন, আফগানিস্তান, পাকিস্তান, ইরাক, সিরিয়া থেকে যে সব ব্রিটিশ জিহাদিষ্ট ব্রিটেনে আবার ফিরে এসেছেন, তাদের দ্বারা ব্রিটেনে ঐ সব ইরাকী মিলিট্যান্টরা ব্রিটেনে হামলার ছক আঁকছে এবং আমাদের জন্য এটা বড় ধরনের এক হুমকি

 

প্রধানমন্ত্রী ক্যামেরন ইতিপূর্বে ব্রিটেন ইরাকে মিলিটারি একশনে ইনভলভ হবেনা বলে জানিয়েছিলেন।

 

ডেভিড ক্যামেরন আরো অবহিত করেন হিউম্যানিটারিয়ান এইড হিসেবে ২ মিলিয়ন পাউন্ড ইরাকে পাঠানো হয়েছে আর ৫ মিলিয়ন পাউন্ড মানবিক সাহায্য ব্রিটেনের দ্বারা পাঠানো হয়েছে।

 

Salim932@googlemail.com

18th June 2014, London.