ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

Zakir-Naik
ডাঃ জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে জঙ্গিবাদের অভিয়োগ অবান্তর। তিনি পূর্ব থেকেই কয়েকটি ধর্মীয় গোষ্ঠীর আক্রোশের স্বীকার। তাঁদের ছুতোর দরকার ছিল। তাই ঝোপ বুঝে কোপ মারার অবস্থা। অনেকেই না জেনে জাকির নায়েকের বিরোধিতায় লিপ্ত। ডাঃ জাকির নায়েকের লেকচার শুনে প্রতি বছর বহু ভিন্ন ধর্মালম্বী ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করছেন। তিনি মূলত ধর্ম প্রচারক। অন্য ধর্মের পণ্ডিতরা তাই তাঁর উপর ক্ষুব্ধ থাকাটাই স্বাভাবিক। তাও ভারতের মত মুসলিম লঘু দেশে।
প্রায় সব প্রধান ধর্ম সম্পর্কেই তিনি ধারণা রাখেন। তাঁর লেকচারে তিনি সেসব থেকেই রেফারেন্স টানেন এবং নিজের মতামত দেয়া থেকে বিরত থাকেন। এটাই তাঁর স্টাইল।
dr-zakir-naik-new-quotes-3
কট্টর মুসলিম গোষ্ঠীর স্বার্থে আঘাত লাগলে তাঁর বক্তব্যের খন্ডিত অংশ তুলে ধরে বিভিন্ন অভিযোগ আনেন। মাজার, তাবলীগ কিংবা হেফাজতের মত দলগুলো জাকির নায়েকের বিরোধী। ডাঃ জাকির বিরুদ্ধে গুরুতর দুটি অভিযোগগুলো এরকম…
* তিনি মুফতি নন এবং কোন মাদ্রাসায় পড়েননি। কিন্তু ইসলামিক বক্তব্য দিচ্ছেন।
* স্যুট টাই পড়ে ইসলাম প্রচার করেন যা সঙ্গতিপূর্ণ নয়।
এদিকে সৃষ্টিকর্তায় বিশ্বাস নিয়ে তাঁর লেকচারে শোকাহত নাস্তিক সমাজ বেজায় ক্ষুব্ধ।
বাংলাদেশিদের মধ্যে পিস টিভির পৃষ্টপোষক বেক্সিমকো গ্রুপ। গ্রুপটি বাংলাদেশে পিস মোবাইল বাজারজাত করে। জঙ্গিবাদের উৎসাহে জড়িত থাকলে গ্রুপটি তাঁদের সাথে নিশ্চয় জড়াত না। ফেসবুকে আমার বন্ধু তালিকার ২০৪ জন জাকির নায়েকের ফলোয়ার। তাঁর পেজে মোট এক কোটি ৪২ লাখ ফলোয়ারের ২৫ ভাগ বাংলাদেশর। বুঝাই যাচ্ছে তিনি কতটা জনপ্রিয়। তাঁর বক্তব্যে জঙ্গিবাদের উস্কানি হলে বিপদগামীর সংখ্যাটা আরও বহু হত।
maxresdefault