ক্যাটেগরিঃ স্বাধিকার চেতনা

http://t2.gstatic.com/images?q=tbn:ANd9GcTtL1VuEgnNuJ_QGz6tnnqJofbGQ_Pu80-a51E3xmgheJ9tcaPO9w

আর মনে রাখবা রক্ত যখন দিয়েছি।রক্ত আরও দিব।তবু এদেশের মানুষকে মুক্ত করে ছাড়বো ইনশাআল্লাহ।তোমরা আমার ভাই তোমরা ব্যারাকে থাক।কেউ তোমাদের কিছু বলবে না।….রক্তের দাগ এখনও শোকায় নাই। অই রক্তের উপর দিয়ে শেখ মুজিব এসেম্বলিতে জয়েন করতে পারেনা।তোমাদের ভাতে মারবো,তোমাদের পানিতে মারবো।………আমি প্রধান মন্ত্রীত্ব চাই না।..এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রম।এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।জয় বাংলা।

বাংলা সাহিত্যের সর্বশ্রেষ্ঠ কবিতা এটি।রচনা করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজবুর রহমান।আবৃত্তিও করেছেন তিনি।বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ মহাকাব্য মেঘনাদ বধ তার চেয়েও অসাধারণ সেই হানাদার বধ।যার বিজয়মন্ত্র এই কবিতাখানি।বঙ্গবন্ধুর অপরূপ সৃষ্টি।এমন করে কেউ বক্তব্য দিবার পারে নাই। ৭ই মার্চের সোহরোয়ার্দী প্রঙ্গনে সেই সে ভাষন অতুলনীয় তাই।

সেই সে কবিতা আমাদের শক্তিশালী করেছিল।৩০ লক্ষ লোকের জীবন দান।অসংখ্য মা বোনদের ইজ্জত ।আবাল-বৃদ্ধ-বনিতার ত্যাগ তিতিক্ষার শক্তির উৎস এই কবিতাখানি।সারা পৃথীবির ইতিহাসে এমন নজির দ্বীতিয়টি নাই।বাংলাদেশের শান্তিপ্রিয় মানুষের ভিতরে এত শক্তির সঞ্চার করেছিল এই কবিতাখানি।

বিশাল জনসমুদ্রে বঙ্গবন্ধুর ভাষনে উত্তাল সমগ্র বাংলাদেশের মানুষের তৎকালীন পরাশক্তি পাকিস্তান বধ পৌরাণিক মেঘনাদকে বধ করার চেয়েও লোমহর্ষক।

বঙ্গবন্ধুর মৃত্যু হয়েছে।ট্রাজিক মৃত্যু।কিন্তু এই কবিতাখানি মরে নাই।আওয়ামীলীগ এখন কপট ,ভন্ড আর চোরের আখড়া।দেশের অর্থনীতি আজ বিপর্যস্ত।রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলো ধারে চলে্ ।সমাবেশ করার স্বাধীনতা মৃত প্রায়।ঘোলা পানিতে মাছ শিকার চলছে।দেশে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গাও হয়ে গেল ।গণতন্ত্র আজ বিপন্নপ্রায়।গভীর সংকট আর সংঘাতের দিকে যাচ্ছে স্বদেশ।আর এটি শেখ হাসিনার একক সৃষ্টি।এই সংকট থেকে উত্তরণের সাহস আর শক্তি যোগাতে পারে ঐ কবিতাখানি।এবারের সংগ্রাম গণতণ্ত্র রক্ষার সংগ্রাম।এবারের সংগ্রাম স্বৈরশাসনের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার সংগ্রাম। যখনি কোন সংকটে পরবে এই দেশ তখনই সেই সর্বশ্রেষ্ঠ কবিতা আমাদের শক্তি দিবে প্রেরণা দিবে বিজয়ী করবে ।