ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

http://ciu.somewherein.net/pictures/selimanwar007/7d843ce4a60ce652f5e653435feab6c2_small.jpeg

৫ কোটি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশংকা করা হচ্ছে ;
১০ লাখের বেশি মানুষকে ঘর ছাড়ার নির্দেশ;
১৩ অঙ্গরাজ্যে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেছে;
৩২ জনের মৃত্যুর প্রাথমিক খবর আরও বাড়ার আশংকা;
৬৫ লাখ মানুষ বিদ্যুৎহীন আবস্থায় দিন কাটাচ্ছে;
৭৬ স্কুলে খোলা হয়েছে আশ্রয়কেন্দ্র;
নিউইয়র্কের নিম্নাঞ্চল নিমজ্জিত

আর্থিক ক্ষতি সব রেকর্ড ছাড়াতে পারে।প্রাথমিক ভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান একহাজার কোটি থেকে দুই হাজার কোটিমার্কিন ডলার হতে পারে।২০০৫সালে আইভান নামক ঘূর্ণিঝড়ে একহাজার ৪০০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছিল ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে।

নিউইয়র্ককে মহা দূর্যোগপূর্ণ এলাকা ঘোষণা করা হয়েছে।আপনাদের সবার উচিৎ এই সকল ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের মঙ্গলকামনা শুভ কামনা করা।বিশ্ব অর্থনীতিতে এর নেতিবাচক প্রভাব পরার আশংকা ।ও গড সেভ হিউম্যান বিং ফ্রম টোটাল ডিস্ট্রাকশন।সারা বিশ্বে শান্তির সুবাতাস বইয়ে দাও স্রষ্টা।এ পর্যন্ত ঘূর্ণিঝড়ে আমাদের দেশে ক্ষতির পরিমান ব্যাপক।সিডর ড্যামেজ এখনো আমরা কাটিয়ে উঠতে পারি নাই।গ্লোবাল ওয়ার্মিং এর কারনে ঘূর্ণিঝড় অতীতের তুলনায় বর্তমানে বেড়েছে প্রায় দিগূণহারে।গ্লোবাল ওয়ার্মিং এর মূলকারণ মনুষ্যসৃষ্ট।আধুনিক উন্নতবিশ্বই এর জন্য দায়ী।আর ভূক্তভূগী আমরা সবাই।সকল মানব আর জীবসম্প্রদায়।এ খেকে মুক্তির উপায়???

আমেরিকায় সৃষ্ট হারিকেন স্যান্ডির আঘাতে উপকুলীয় শহর আটলান্টিক সিটি মারাত্নক ভাবে বিপর্যস্ত, সমগ্র সিটিতে সমুদ্রের পানি দ্বারা প্লাবিত । এর মধ্য নতুন উপদ্রব পানিতে কেউ নামতে পারছে না, শহরের পানিতে হাঙর অবাধে বিচরণ করছে ।