ক্যাটেগরিঃ স্যাটায়ার

সবুজ মিঞার ট্রাঞ্জিস্টার ঠিকমত বাজে না। আওয়াজ কমে, বাড়ে, আবার বন্ধও হয়ে যায়। সবুজ মিঞা নিজেই মেরামত করেন। ট্রাঞ্জিস্টারটা খুলে কি একটা ঘুরিয়ে দেন। সবুজ মিঞার ট্রাঞ্জিস্টার ঠিকমত বাজে। আবার সমস্যা, আওয়াজ কমে, বাড়ে, আবার বন্ধ। সবুজ মিঞা ট্রাঞ্জিস্টারটা খুলে আরেকটা কি যেন ঘুরিয়ে দেন। এভাবে চলছে সবুজ মিঞার ট্রাঞ্জিস্টার শোনা ও মেরামত। সবুজ মিঞার নিজের ট্রাঞ্জিস্টার নিজে চালান, নিজে  মেরামত করেন। সমস্যা কী? কারও কোনো সমস্যা নেই। একদিন কী হল সবুজ মিঞার ট্রাঞ্জিস্টার আর বাজে না। সবুজ মিঞা এটা ঘোরান, ওটা ঘোরান, এটা খোলেন, ওটা বন্ধ করেন, ট্রাঞ্জিস্টার বাজে না। বাজে না। আর বাজে না।

সবুজ মিঞার ট্রাঞ্জিস্টারটা নিয়ে বাধ্য হয়ে গেলেন টেকনেশিয়ানের কাছে। টেকনেশিয়ান ট্রাঞ্জিস্টারটা খুলে দেখলেন। এটা সেটা সবটা দেখে তিনি ঘোষণা দিলেন, ট্রাঞ্জিস্টারটা একদম শেষ হয়ে গেছে। এটা আর মেরামত হবে না। সবুজ মিঞা মাথায় হাত দিয়ে কাদতে লাগলেন।

শিক্ষার “‘মান বাড়াতে’ এবার বাড়বে পাস নম্বর” শিরোনাম এর খবরটি পড়ার পর সবুজ মিঞার ট্রাঞ্জিস্টার মেরামত এর ঘটনাটা মনে পড়ে গেল।

সরকারের বাল্য বিবাহের বয়স কমানো আর শিক্ষার মান বাড়াতে পাস নম্বর বাড়ানো একই সূত্র।