ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

২০১৪ সালে বসে শিক্ষামন্ত্রী ২০১২ সালের মধ্যে বিশ্বমানের শিক্ষার স্বপ্ন দেখাচ্ছেন। এট লিস্ট ২০১৪ সালে বসে যদি দেশীয় মানের গুণগত মানসম্মত শিক্ষার কাজটা সম্পন্ন করে দেখাতে পারতেন, এমনকি উদ্যোগে-আয়েজন শুরু করতেন, মানুষের মনে আশা জাগাতে পারতেন, তাহলে তার কথাগুলো রাজনৈতিক বক্তৃতা মনে হতো না; যা এখন একজন সাধারণ তথাকথিত রাজনীতি-মন্ত্রীর কথার ফুরঝুরি ছাড়া কিছু মনে হয় না। হতাশা থেকে মুক্ত করে না। তাঁর ২০১৪ সালে বসে শিক্ষামন্ত্রী ২০১২ সালের মধ্যে বিশ্বমানের শিক্ষার স্বপ্নের শুরুটা কে করবে? কখন করবে? শেষ হওয়ার কথা না হয় বাদই দিলাম? তার আগে গুণগত মানসম্মত শিক্ষার কাজটা শুরু করবেন কবে? সম্পন্ন করে দেখাবেন কবে? উত্তর আশা করি না। একজন তথাকথিত রাজনীতি বর্তমান সময়ের রাজনীতিবিদ-কাম বাম থেকে আসা …শিক্ষামন্ত্রীর কাছে আর কোনো আশা নেই। তিনি যা নেওয়ার নেবেন ২০১২ সালের আগে আগে। কিছুই দেবার নেই চেষ্টাও নেই। হেসে খেলে জীবনটা যদি চলে যায়…আর কী?

আমাদের শিক্ষার হালচাল? হাল খারাপ, চালে ফুটো। বিষয়টি সবাই দেখেন, যেমন পাশাপাশি দুটি নিউজ হয়েছে পত্রিকায়, একটি মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন, শিক্ষার মান ভালো পর্যায়ে নেই : পরিকল্পনামন্ত্রী (http://www.dailybartoman.com/details.php?id=31530tp://www.dailybartoman.com/details.php?id=31558)। তবুও আমাদের মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী দানাই-পানাই করে চালিয়ে দেবেন। আর মাঝে মাঝে তথাকথিত বর্তমান রাজনীতিবিদ এর মতো কথা বলবেন যার কোনো ভিত্তি নেই। এই অবস্থায় জাতি কী করবে, দিশেহারা। একমাত্র দিশা ঠিক েরেখে কাজ করে যাচ্ছে স্কুল দখলকারী চক্র, স্কুলের ফান্ড লুটেরা, দুর্নীতিবাজ …

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা শতকরা ৯৯ জন শিশুকে শিক্ষাসুবিধার আওতায় নিয়ে আসতে পেরেছি। এখন শিক্ষার গুণগত মান বাড়াতে হবে। আর শিক্ষার মান বাড়াতে হলে মানসম্মত শিক্ষকের দরকার।’ এসব কাজ কবে হবে? শুধু “করতে হবে”, “শিক্ষার গুণগত মান বাড়াতে হবে” বলে বলে আর কত কালক্ষেপন করা হবে?

এভাবে একটা শিক্ষাব্যবস্থা চলতে পারে না। ধ্বস নামবে। একটা প্রজন্ম ধ্বংস হয়ে যাবে। এই বঞ্চিত প্রজন্ম আমাদের সমাজকে গ্রাস করবে। আর কত?
http://www.dailybartoman.com/details.php?id=31555

http://www.dailybartoman.com/details.php?id=31558