ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

নতুন প্রজন্মকে বলা হয় জাতির ভবিষ্যত। আশা, আকাঙ্ক্ষা, স্বপ্ন, সুখ সব কিছুই তাদেরকে নিয়ে রচিত হয়। বাবা মা, পরিবার পরিজন, সমাজ, রাষ্ট্র থেকেই রচনা হয় স্বপ্ন। প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ ছাত্র ছাত্রী স্কুলের গণ্ডি পেরিয়ে কলেজের উঠোনে পা রাখে। তারাও স্বপ্ন দেখে নতুন জগতে উড়ে বেড়ানোর, নতুন জীবনের স্বাদ পাওয়ার। সাথে যুক্ত হয় জাতির প্রত্যাশা। নতুনদের সাথে নিয়ে উজ্জল ভবিষ্যতের সম্ভাবনা।

কে জানত স্বপ্ন গলির চিপায় চাপায় লুকিয়ে আছে সর্বনাশের বিষধর সাপ! টকটকে মুখের বাচ্চাগুলোকে আর ক্লাসে পাওয়া যায় না। কলেজের আসে পাশে কোনও ঘিঞ্জি গলিতে ওদের আস্তানা। সাপের বিষে ওদের নাক মুখ ঠোঁট কালো কুৎসিত। ভবিষ্যতের বড় একটা অংশ সাপের বিষে ঢলে পড়ল পরিণত পাওয়ার আগে।

এই বছরের এপ্রিলে শুরু হতে যাচ্ছে এইচ.এস.সি পরীক্ষা। সারাদেশের লাখ লাখ ছাত্র ছাত্রী প্রস্তুত জীবনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এই পরীক্ষায় অবতীর্ণ হতে। পরীক্ষা শেষে আবার পরীক্ষার প্রস্তুতি, এবার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার লড়াই। লড়াইতে তারাই টিকবে যারা অসম্ভব মেধাবী। অতএব হাজার হাজার যোদ্ধাদের মাঝখান থেকে কিছু বিজয়ী চান্স পাবে পাবলিক ইউনিভার্সিটিতে।

যদি প্রশ্ন করা হয় বিগত তিন বছরে বাংলাদেশে সবচেয়ে অস্থির ও ভয়ংকর জায়গা কোথায়? সবাই বলে সরকারী বিশ্ববিদ্যালয়! অবাক হয়ে যাই আমি, অবাক হয় সারা বাংলাদেশ আর অবাক হয় বিশ্ব।

ভবিষ্যত দুমরে মুচড়ে, তছনছ হয়ে যাচ্ছে। রাজনীতির নামে অশুভ ছায়া চারদিক থেকে ধেয়ে আসছে! কাঙ্খিত স্বপ্নের ভবিষ্যত অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যুর মুখে। দীর্ঘ:শ্বাস আর হতাশা ছাড়া আর কিই বা করতে পারি আমরা?

ঢাকা, চট্রগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল আর কোথায় বাকি টা আমি জানিনা যেখানে ছাত্রদের কালি শেষ হয় না, রক্ত শেষ হয়ে যায়। সরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে জীবনের নিরাপত্তা নাই, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানোর টাকা নাই আর বিদেশে পড়তে যাওয়ার ভিসা নাই। কোথায় যাব আমরা? কোথায় যাচ্ছে আমাদের ভবিষ্যত? যেখান থেকে আমাদের ভবিষ্যতের ডাল পালা ছড়ায় সেখানেই যদি মরক লাগে তাহলে কী হবে আমাদের? বিশ্ববিদ্যালয়ের যে যত বড় কেডার, দল ক্ষমতায় গেলে তার জায়গাও তত উপরে। আবার শুরু হয় বিষধর সাপের খেলা, এবারের খেলা ক্ষমতার, অর্থের, লুটপাটের, দুর্নীতির। হত্যা, গুম, হয়রানি, চাঁদাবাজি, প্রতিশোধের খেলা। বিষধর কাল সাপের বিষে নীল হয়ে যায় সারা দেশ।

এই লেখাটির শেষ হবে না, কী বলে শেষ করব? কোথায় শেষ করব? কোনও সমাপ্তি আমার জানা নেই। নেই কোনও কিছু বলারও নেই। শুধু প্রশ্নের পাকে ঘুরপাক খাই..।
নিজেও জানিনা আগামীদিনের পরিণতি। হয়ত এভাবেই পার হয়ে যাবে জীবনের বাকি দিনগুলো অথবা কাল সাপের বিষাক্ত ছোবলে কোনও একদিন রাস্তায় ঢলে পড়বো…. অনিশ্চিত ভবিষ্যত পড়ে থাকবে অনাগত মানুষের জন্য..।