ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

 

মানবতার দিক বিবেচনায় আমরা নাহয় রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিলাম, এভাবে আমাদের মত তৃতীয় বিশ্বের একটি দেশ কতদিন রাখতে পারব? দেখলাম মালয়শিয়া ত্রান নিয়ে আসল, তুরস্কের ফাস্টলেডি ঢুঁ মেরে গেল, নিস্ক্রিয় জাতিসংঘে ও মানবতাবাদি সংগঠনগুলির নানান গলাবাজি! এভাবে আর কতদিন! যেখানে আমাদের নাগরিকদের মৌলিক চাহিদা মিটাতে আমরা হিমশিম খাচ্ছি, সেখানে এই বাড়তি মানুষের চাপ কতটা নিতে পারব আমরা? তাহলে সমাধান কী? মায়ানমার আসলেই কি রোহিঙ্গাদের ফেরত নিবে? আমার মনে হয় না, কারন বর্তমান বিশ্বের অন্যতম পরাশক্তি ভারত ও চীন মায়ানমারের পক্ষেই মনে হচ্ছে, অন্যদিকে আমরিকা নিরপেক্ষ ভূমিকায়, রাশিয়া একদমই চুপ।

আসুন আমাদের ইতিহাস এরদিকে তাকানো যাক, ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধ, পাকিস্তানিরা আমাদের উপর কতইনা অত্যাচার, নিপীড়ন চালিয়েছিল। লক্ষ লক্ষ মানুষ ভারতে পারি জমিয়ে ছিল। মুক্তির জন্য যুদ্ধও হয়েছিল। ভারত গিয়ে মুক্তিযোদ্ধারা ট্রেনিং নিয়ে আসত। অনেকটা রোহিঙ্গাদের সাথে আমাদের অবস্থা মিলে যাচ্ছে!

আমারা কি পারিনা রোহিঙ্গাদের সামরিক ট্রেনিং দিয়ে প্রতিবাদী করতে? হ্যা, জানি যুদ্ধ কখনই শান্তি আনতে পারেনা, কী করার তাহলে? ১৯৫০ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত আজ অবধি তারা অবেহেলিত, অবশেষে বিতারিত!