ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

 

৭১ এ সেই জামায়াতি জেহেলিয়তের চিত্র। ঘাতক গনিমতের মাল প্রবক্তা গোলাম আযম মালেক মন্ত্রী সভার সভায় মালেক রাও ফরমান আলী প্রমুখ ঘাতকদের সঙ্গে গনহত্যার নকশা করছেন

সেই গোলাম বিচারের মুখে পড়লেও তাকে পূর্ন রাষ্ট্রীয় আথিথেয়তা করা হচ্ছে

আমার লড়াই জামায়াতি জেহেলিয়তের বিরুদ্ধে; আপনিও শরীক হোন মুক্তবুদ্ধির মুক্ত দুনিয়ার জন্য। আর বসে থাকতে পরলাম না। জামাতি জেহেলদের হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। তাই বিডি নিউজ ব্লগে লিখতে নেমে পড়লাম। ওরা খুবই সক্রিয়। ওদের সক্রিয়তার বিরুদ্ধে লিখব। ওদের শয়তানির বিরুদ্ধে লিখব। ওরা সভ্যতার বিরুদ্ধে। যুদ্ধাপরাধের বিচার চাই। ৩০ লাখ শহীদের রক্তের হিসাব চাই। ৩ লাখ মা-বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে যে স্বাধীনতা জামায়াতি জেহেলীরা সেই পতাকা শকুনের মত খুবলে খাবে;তা হবে না। আমিও ধার্মিক। আমি নামাজ পড়ি। কিন্তু ধর্ষক খুনিদের পক্ষে নই। ধর্ষকখুনিরা যখন ইসলাম রক্ষার কথা বলে; ইসলামের কথা বলে তখন রসুলের কথা অনুযায়ী শেষ কিয়ামত আসন্ন। ওরা ইসলামের নাম ভাঙিয়ে আবার সমাজ রাষ্ট্র দেশকে আইয়ামে জাহিলিয়তে নিতে চায়।

বায়তুল মোকাররমে ৮১ সালে গোলাম আযমকে জুতাপেটা করছেন সাধারণ মুসল্লিরা। আমি সেই মুসল্লিদের একজন

৭১ সেই জন্য বাঙালি জাতির ওপর শকুনি কামড় দিয়েছিল। ৩০ লাখ নারী পুরুষকে ওরা ধর্ষন নির্যাতন করে হত্যা করেছে। ৩ লাখ মাবোনকে ধর্ষণ করেছে। আজ আবার জাতির ইজ্জত মানচিত্র ওরা খুবলে খেতে চাচ্ছে। আর থেমে থাকতে পারলাম না। ওদের বিরুদ্ধে তাই কলম ধরলাম।