ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

কত বড় আস্পদ্ধা জেহিলি জামায়াতের ও তস্য পোষ্য শিবিরের। গৃহযুদ্ধের হুমকি দিয়েছে তারা। পিপিলিকার পাখা গজায় আত্মহত্যার তরে। জেহিলি জামাত-শিবিরের হয়েছে সেই দশা। এই অপজন্মিত অইয়ামে জাহিলিয়ত চক্রের মুখোশ খুলে দিতে বুড়ো বয়সে তারুন্য দীপ্ত কলমে ব্লগে নেমে পড়েছি । ওদের ক্ষমা নেই। ওদের বাড়তে দিলে দেশ জাতির জন্য বিষাক্ত হুমকি হবে সে কথা আমি অনেক আগেই বলেছি। এবার হুমকি দিয়ে তারা তাই প্রমাণ করল। ওদের হুমকি মোকাবেলা করতে হবে বুদ্ধিমত্তার সাথে। ওদের বিরুদ্ধে বাংলা ইংরাজি ব্লগে সর্বাত্মক লড়াই করতে হবে।

ওরা গৃহযুদ্ধের হুমকি দিয়েছে খুব সুকৌশলে। মনে রাখতে হবে তারা এমন সময় কথাটা বলল যখন তথাকথিত ১৮ দলের নেতা বিএনপি নেত্রী জেহিলি জামায়াতের অঅসল পৃষ্ঠপোষক খালেদা জিয়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে আহবান জানালেন বাংলাদেশের ভেতরে নাক গলাতে। গনতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করে দিতে। বুদ্ধি হাঁটুতে নামলে বা থাকলে এমন উক্তি করা সম্ভব বলে অনেকে বলছেন। কিন্তু এখন মনে হচ্ছে সবকিছু প্লান করা। একদিকে আমেরিকাকে খালেদার বাংলাদেশের গৃহাভ্যন্তরে ডাক; জামায়াতের গৃহযুদ্ধের ডাক- সব মনে হয় এক সূত্রে গাথা। আমেরিকার যা স্বভাব-গৃহযুদ্ধ র উসিলায় তারা নানা দেশে নাক গলায়। ঢুকে পড়ে। সেই প্লান প্রোগ্রাম মনে হয় আমেরিকাকে আর কষ্ট করে করতে হল না। কেননা আমাদের স্বাধীনতার ঘৃন্য শত্রু জামায়াত শিবির ও তার পৃষ্ঠপোষক খালেদা জিয়া নিজেই আমেরিকাকে ডেকে আনতে এক পায়ে খাড়া। কসাই কাদের মল্লার ফাসি রায় হবে জাতি মহাখুশি। সেখানে এই দেশবিদ্রোহী স্বাধীনতার শত্রু চক্র গোলাম আযম নিজামী কামরাজজামান সাঈদীর ফাঁসি রুখতে নানা চক্রান্তে লিপ্ত।

এজন্য তারা ৭১ সালের মত দেশ মাতৃকাকে পাকিস্তানি -মার্কিনি হায়েনাদের হাতে তুলে দিতে অপতৎপর। সেই নোংরা চক্রান্তের অংশ হিসেবেই খালেদা জামায়াত চক্র আতাত বেধেছে। জামায়াত গৃহযুদ্ধের মহড়া দেবে। দেশকে আবার ৭১ এর মত হায়েনার আক্রমনের শিকার করবে। আর তখন খালেদা বাঁচাও বাঁচাও বলে আমেরিকার অন্যায় হস্তক্ষেপের জন্য নাকি কান্না জুড়বে। সুতরাং সাবধান হুশিয়ার বীর বাঙালি। এদেরকে সর্বশক্তি দিয়ে রুখতে হবে।