ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

 
solakia_18545_1467960838

বাংলাদেশে একের পর এক ইসলামী সন্ত্রাসীদের আক্রমন হচ্ছে । জঙ্গী মারাও পড়ছে । কিন্তু লাখ টাকার প্রশ্ন হলো- এসব আক্রমণের নেপথ্যে কে রয়েছে ? এই তথাকথিত ইসলামী জেহাদীদের আক্রমণের কারণে ইসলামের সব চেয়ে বড় উৎসব ”ঈদুল ফিতর” এর আনন্দকেও ম্লান করে দিয়েছে । ইসলামের সব চেয়ে গুরত্বপূর্ণ মাস ”রমযান” এমন মাসের সম্মান না দেখিয়ে ইসলামী জঙ্গীরা ঢাকার গুলশানে আক্রমন করলো এবং হত্যা করলো মুসলিম ও নারীসহ বিশ জনকে । কোনো ধর্মপ্রাণ মুসলিম কি এই হত্যা কাণ্ডকে সমর্থন করতে পারে ? তারপর ঈদের দিন দেশের সব চেয়ে বড় ঈদ গাহে আক্রমণ করে নামাজীদের সুরক্ষায় থাকা পুলিশদের হত্যা করলো । এটা কি মুসলমানের কাজ ? এমন জঘন্য কাজ কয়েক যুগ ধরে পাকিস্তানে হয়ে আসছে এখন তা বাংলাদেশ পর্যন্ত গড়িয়েছে ।

ইসলামের উপকার করতে কি কোনো মুসলমান রমযান মাস ও ঈদের দিনে আক্রমণ করতে পারে ? উত্তর- কখনোই তা পারে না । তাহলে এই সব আক্রমণ কোন উদ্দেশ্যে করানো হচ্ছে এবং কে করাচ্ছে ? ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের মাধ্যমে আওয়ামি লীগের পুনরায় ক্ষমতায় আসার পর টিভির টক শো-তে এসে বিএনপি নেতাদের বলতে শুনেছি; যদি সরকার তত্ত্বাবধায়ক সরকারে মাধ্যমে নির্বাচন না দেয় তাহলে জঙ্গিবাদ মাথা চাড়া দিয়ে উঠবে । তার মানে এমন হবে তা তাঁরা আগে থেকেই জানতেন । প্রশ্ন হলো কীভাবে তাঁরা এসব কথা জানতেন ? আর এই সব আক্রমণ আওয়ামী লীগ সমর্থকদের ওপরেই কেন হয় ? বিএনপি সমর্থকদের ওপরে কেন হয় না ? একটু মাথা খাটালেই প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন ।

আর একটু আলোচনা করলেই নেপথ্যে কাঁরা আছেন তা পরিস্কার হয়ে যাবে । একটু লক্ষ করবেন- ইদানিং বিএনপির নেতা-কর্মি ও সমর্থকরা বলে বেড়াচ্ছেন যে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দিলে নাকি এই জঙ্গিবাদের সমস্যা দেশে থাকতো না । এখানেই শেষ নয়, খালেদা জিয়া তো জঙ্গিবাদের আড়ালে সরকারের পদত্যাগও দাবি করে ফেলেছেন । নিরপেক্ষ নির্বাচনের সাথে জঙ্গিবাদের সম্পর্কটা কি করে হলো ? তাহলে কি জেএমবি-র ভাড়াটে জঙ্গীদেরকে কেউ নিজের রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করছেন ? এখন ব্যাপারটা পরিস্কার হয়ে গিয়েছে যে কেন এই তথাকথিত ইসলামী জঙ্গীরা রমযান ও ঈদের প্রতি সম্মান দেখায় না ।

এদের উদ্দেশ্যই হলো রাজনীতি । মানুষ যাতে বুঝতে না পারে তার জন্য তারা হিজাব ও কোরানের আয়াতের প্রশ্ন তোলে । বিরোধী রাজনীতিবিদদের উদ্দেশ্য হলো- ভারতসহ সকল অমুসলিম দেশকে বাংলাদেশের শত্রু বানিয়ে দেওয়া যাতে ঐ সব দেশের চাপে আওয়ামী লীগ সরকারের পতন হয় । আমি সরকারকে অনুরোধ করবো- হামলা যে করছে তার চেয়ে বেশি যে করাচ্ছে তাকে খুঁজুন । একেবারে গোড়া উপড়ে ফেলুন । নইলে এই হামলা ঠেকানো কঠিন হবে ।