ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

তারেক রহমানের সাক্ষাৎকার

বৃটেনের টেলিগ্রাফ পত্রিকার সাংবাদিক জন টেইলার আমার অনুরোধে তারেক রাহমানের একটি সাক্ষাৎকার লিপিবদ্ধ করে । আজ আমি সেই সাক্ষাৎকারটি আপনাদের জন্য পোস্ট করব। আশা করি আপনারা এই সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে বিএনপির এই জনপ্রিয় নেতার ভবিশ্যত পরিকল্পনা সম্মন্দে জানতে পারবেন । চলুন মূল প্রসংগে যাওয়া যাকঃ-

টেইলার যখন তারেকের সাক্ষাৎকার নিতে উপস্থিত হন তখন তারেক তার ল্যাপটপে ইন্টারনেট সার্চ করছিলেন । টেইলার নিজের পরিচয় দিয়ে বলেন আমি আপনার সাক্ষাৎকার নিতে এসেছি, এবং তারেক তাতে সম্মতি প্রকাশ করেন । তার পর টেইলার তার সাক্ষাৎকার নিতে শুরু করেন ।

টেইলার- আপনি তো চিকিৎসারত, এখন আপনার শারীরিক অবস্থা কেমন ?

তারেক- আগের চেয়ে অনেক ভালো । আশা করি অচিরেয় আমি পূরোপুরি সুস্থ হয়ে দেশে ফিরতে পারব ।

টেইলার- দেশে গিয়ে আপনার প্রথম পদক্ষেপ কি হবে ?

তারেক- দেশে গিয়ে আমি সর্ব প্রথমে পার্টিকে পুণরায় শক্তিশালি করবো । কারন, পার্টীর অবস্থা বর্তমানে খুবই খারাপ, এই অবস্থায় নির্বাচনে অংশ নিলে আমরা আবারো শোচনিয় ভাবে হারব ।

টেইলার- গত নির্বাচনে আপনারা খুবই কম সীট পেয়েছিলেন আপনাদের পার্টির এই ভরাডুবি কারন কি ?

তারেক- প্রথম কারন হলো আমাদের গত সরকারের অধিকাংশ মন্ত্রীদের অনেক বেশি দুর্নীতি । দ্বিতীয় কারন হলো আমাদের পার্টীর পলিসি, ২০০০ সনের পর থেকে বাংলাদেশে শিক্ষিত মানুষের সংখ্যা অতি মাত্রায় বৃদ্ধি পেয়েছে যারা দেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের প্রতি অত্যন্ত শ্রদ্ধাশীল যেই কারনে ওরা আমাদের কে ভোট দেয়নি । তাছাড়া টিভি চ্যানেল গুলো আমাদের দুর্নীতির ব্যাপারে এবং আমাদের কে স্বাধীনতা বিরোধীদের সাথে জড়িয়ে রাত দিন প্রচারনা চালায় যার ফলে অধিকাংশ স্বাধারন মানুষ আমাদের কে ভোট দেয়নি ।

টেইলার- যেহেতু জনগন আপনাদের পলিসি গ্রহন করছে না তাহলে আপনারা এই পলিসি পরিবর্তন কেনো করছেন না ?

তারেক- অসম্ভব, আমার বাবা জিয়া উর রাহমান বিএনপি কে এই পলিসি দিয়ে গেছেন । স্বাধীনতার পক্ষের শক্তির বিরোধীতা করতেই বিএনপির জন্ম । অতএব, এই পলিসি বাদ দিলে বিএনপির অস্তিত্ব থাকবে না । বাংলাদেশের জন্ম যে ভুল ছিল তা আমরা বাঙালী জাতী কে বুঝিয়ে ছাড়ব ।

টেইলার- বাঙালী জাতী তো স্বাধীনতা রক্ত দিয়ে অর্জন করেছে, এখন তাদের কে কি করে বোঝাবেন যে স্বাধীনতা ভুল ছিল ?

তারেক- আপনি জানেন আমাদের দল নির্বাচনের মাধ্যমে দুই বার ক্ষমতায় এসেছে তার মানে আমরা অনেক লোক কে আমাদের কথায় আনতে পেরেছি । আমাদের দেশের মানুষ সরল সোজা ধর্ম প্রাণ মুসলমান এরা এক কথায় অমুসলিমদের বিরুদ্ধে উঠে দাড়ায় । ৭১-এর যুদ্ধের সময় ভারত বাংলাদেশ কে সাহায্য করেছিল তখন থেকেই আ’লীগের সাথে ভারতের সুসম্পর্ক, আর সেই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে আমরা আ’লীগের বিরুদ্ধে প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছি ।

টেইলার- সেই প্রচারনাটা কি ?

তারেক- প্রচারনা হলো আওয়ামী লীগ ভারত পন্থী পার্টী, আওয়ামী লীগের প্রধান কাজ হলো ভারত ও হিন্দুদের স্বার্থ রক্ষা করা ইত্যাদি । আমরা বাংলাদেশ কে ভারতের মুখোমুখি সংঘাতে দাড় করিয়ে দেব, যখন ভারত বাংলাদেশ কে চোখ রাঙাবে তখন বাংলাদেশীরা নিজেদের কে বড় একা মনে করবে এবং ভাববে আজ যদি আমরা পাকিস্তানের সাথে থাকতাম তাহলে ভারত এই ভাবে আমাদের চোখ রাঙানোর সাহস পেত না ।

টেইলার- কিন্তু ভারত তো পাকিস্তান কেও চোখ রাঙাচ্ছে ।

তারেক- হ্যাঁ, কিন্তু বাংলাদেশের স্বাধারণ মানুষ সেই খবর রাখে না । তারা কে কি বল্ল তা নিয়েই বেশি মারামারি করে । আমরা বাংলাদেশের জনগন কে সঠিক জিনিষ বোঝার মতো যোগ্য হতে দিইনি ।
টেইলার- যেখানে ক্রমেই শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছে সেখানে আপনারা আর কতদিন দেশের মানুষ কে বোকা বানাতে সক্ষম হবেন বলে আপনি মনে করেন ?

তারেক- একথা সত্যি যে স্বাধারাণ ভোটারদের একটা বিরাট অংশ শিক্ষিত হওয়ার পর আমাদের পেছন থেকে সরে গেছে কিন্তু তার সাথে এটাও দেখতে হবে অনেক শিক্ষিত মানুষ এখনো আমাদের পক্ষে আছে । যার শরীরে প্রগতিশীলের রক্ত নেই সে শত শিক্ষা লাভ করেও অন্ধবিশ্বাসীই থেকে যায় ।

টেইলার- আমি পাকিস্তান ভ্রমন করেছি আমি সেখানে দেখেছি পাকিস্তানীরা বাংলাদেশীদের কে খুবই খারাপ মনে করে । বাঙালীদের ভাষা, খাওয়া-দাওয়া, পোষাক-আশাক, চলা-ফেরা সব কিছু কেই নিয়ে ওরা ঠাট্টা করে ঘৃনা করে তার পরও আপনারা পাকিস্তানের গুন কি করে গান ?

তারেক- তাই নাকি ? আমার তো একথা জানা নেই । ঠিক আছে আমি খোঁজ নিএ দেখব ।

টেইলার- এবার আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে বেশির ভাগ যুদ্ধাপরাধীদের গ্রেফতার করে তাদের কুকর্মের বিচার করছে যাদের সবই আপনাদের জোটের নেতা । কোনো দিন আপনারা ক্ষমতা পেলে কি এর
প্রতিশোধ নিবেন ?

তারেক- অবশ্যই প্রতিশোধ নেব । আগের বার লক্ষচ্যুত হয়েছি । গ্রেনেড জায়গা মতো ফাটাতে পারিনি, এবার লক্ষচ্যুত হব না । ওরা পিটিয়ে আমাদের কমর ভেঙেছে আমি ওদের সকল নেতার কমরের সাথে ঘাড়ও ভেঙে দেব। হাসিনা আমার মাকে বাড়ি ছাড়া করেছে আমি হাসিনা কে পৃথিবী ছাড়া করব । ইতিহাসের পূণরাবৃতি ঘটাব যেই ভাবে আমার বাবা শেখ মুজিব কে সেনাবাহিনীর লোক দিয়ে তার বাড়িতে মেরেছিল ঠিক সেই ভাবে আমি RAB দিয়ে হাসিনাকে তার নিজ বাড়িতে মারব । আওয়ামী লীগের চিহ্ন পর্যন্ত বাংলাদেশের মাটিতে রাখব না । আ’লীগই আমাদের বড় বাধা । আ’লীগের কারনে আমরা বাংলাদেশ কে আমার বাবার স্বপ্নের পূর্ব পাকিস্তান বানাতে পারছি না ।

টেইলার- বাংলাদেশের মানুষ কি আপনাদের পূর্ব পাকিস্তান মেনে নেবে ?

তারেক- এত সহজে বেড়াল গাছে ওঠে না । আমরা ভারতের সাথে বাংলাদেশের যুদ্ধ বাধিয়ে দেব যখন শক্তিশালি ভারত দুর্বল বাংলাদেশের মানুষ কে মারতে শুরু করবে তখন পাকিস্তান আমাদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবে তার পর দেখবেন অটোমেটিক এই দেশের মানুষ বিএনপি এবং পাকিস্তানের পক্ষে চলে যাবে । আর আ’লীগ কে ঘৃণা করবে ।

টেইলার- যুক্ত রাষ্ট্র প্রায় পাকিস্তানের ভেতরে বোমা হামলা করে পাকিস্তানীদের কে হত্যা করছে যার কোনো প্রতিকার পাকিস্তানীরা করতে পারছে না । যেই পাকিস্তান নিজের দেশ কে রক্ষা করতে পারেনা সে বাংলাদেশ কে কী করে সাহায্য করবে ?

তারেক- আমরা পাকিস্তানের ইশারায় অনেক কাজ করেছি, ওদের ইন্টেলিজেন্ট সংস্থা ISI কে অবাধে বাংলাদেশের মাটিতে কার্যক্রম চালাতে দিয়েছি তাই আমরাও আশা বাদী যে পাকিস্তানও আমাদের জন্য কিছু করবে ।

টেইলার- জামাত সরাসরি স্বাধীনতার বিরোধীতা করেছিল এবং এখনো করছে তা জেনেও আপনারা জামাতের সাথে কেন জোট বেধেছেন ?

তারেক- আওয়ামী লীগের চোখে জামাত স্বাধীনতা বিরোধী হতে পারে আমাদের চোখে জামাত কোনো ভুল করেনি । পাকিস্তান আমাদের দেশ ছিল অতএব নিজের দেশের পক্ষে অবস্থান নেওয়া ভুল হতে পারে না । জামাত পাকিস্তানের পক্ষে থেকে এবং বাংলাদেশের বিরোধীতা করে সঠিক কাজটিই করেছে । বরং পাকিস্তান ভেঙে বাংলাদেশ বানিয়ে আওয়ামী লীগ অপরাধ করেছে ।

টেইলার- সম্প্রতি bdnews24.com-এ আপনার বাবার ডায়রী প্রকাশিত হয়েছে আপনি কি সেটা পরেছেন ?

তারেক- হ্যাঁ, আমি পড়েছি । আমার বাবা ঐ ডায়রীতে যথার্থই লিখেছেন যা সত্যি তাই লিখেছেন তিনি বাংলাদেশের স্বাধীনতা কে কখনই মেনে নিতে পারেননি তাই আওয়ামী লীগ ও শেখ মুজিব কে তিনি ঘৃণা করতেন । কারণ, এই শেখ মুজিব ও তার আওয়ামী লীগই পূর্বপাকিস্তান কে আজকের বাংলাদেশ বানিয়েছে ।

টেইলার- কিন্তু আমি তো দেখছি দেশ স্বাধিন করে বঙ্গবন্ধু ভুল করেননি আপনি জানেন বর্তমানে পাকিস্তানের চেয়ে বাংলাদেশের সার্বিক অবস্থা অনেক ভালো । পাকিস্তানে খাদ্য দ্রব্যের দাম বাংলাদেশের চেয়ে অনেক বেশি, ওখানে মানুষ না খেয়ে মরছে । পাকিস্তান সরকার জনগন কে রুটি খাওয়াতে পারছে না খাওয়াচ্ছে শুধু গুলি আর বুলেট । ওখানে এক ডলারের দাম ৮৮ টাকা সেই হিসেবে আমি মনে করি বাংলাদেশ অনেক ভালো আছে । আপনি কি বলেন ?

তারেক- হ্যাঁ, তা আপনি ঠিকই বলেছেন । ইশ আমার কমরের ব্যথাটা আবার বেড়ে গেছে আমি আর আপনার সাথে কথা বলতে পারব না ।
টেইলার- ঠিক আছে, আপনি বিশ্রাম করুন আমি এখন উঠি সাক্ষাৎকার দেওয়ার জন্য আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ ।

তারেক- আপনাকেও ধন্যবাদ ।

টেইলার যেহেতু আমার অনুরোধে সাক্ষাৎকারটি গ্রহন করে তাই এর লিখিত কাগজ গুলো আমার কাছে হস্তান্তর করে । আমি আপনাদের সেবায় তারেকের সাক্ষাৎকারটি bdnews24.com-এর মাধ্যমে প্রকাশ করলাম আশা করি এর দ্বারা আপনারা অনেক সত্যি কথা জানতে পারবেন ।আমার ফোন নাম্বারঃ- ০০৪৪৭৯২৪০০০৮৯৬