ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

বাংলাদেশে ইসলামী আইন প্রতিষ্ঠিত করার জন্য জামাত দীর্ঘ দিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে আসছে । ইসলামী আইন প্রতিষ্ঠিত হলে বাংলাদেশেও মৃত্যুদন্ড শিরশ্ছেদের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হতো । যেহেতু জামাত নেতারা ইসলামী আইনের জন্য লালায়িত এবং শিরশ্ছেদের পক্ষে মত দিয়ে থাকেন অতএব, তাঁদের মৃত্যুদন্ড শিরশ্ছেদের মাধ্যমে কার্যকর করলে কেমন হয় ? এতে তাঁদের ইসলামী আইন বিষয়ক মনের আকাঙ্খা ও পূর্ণ হয়ে যাবে । এক বর্বর আরবী কে হত্যার জন্য ৮ বাংলাদেশির শিরশ্ছেদ করেছে, যুদ্ধাপরাধীরা তো এক জনে একাধিক মানুষকে হত্যা করেছে এর জন্য কত জন রাজাকারের শিরশ্ছেদ করা উচিৎ ? সৌদীর তথাকথিত ইসলামী আইনের অনুসরন করলে তো জামাতের সকল সদস্যের শিরশ্ছেদ করা লাগবে । তাই নয় কি ?

তবে আমি কিন্তু মৃত্যুদন্ডকে সমর্থন করি না । কারো মৃত্যু কাম্য নয় । সৌদী এক ইন্দোনেশিয়ানের শিরশ্ছেদ করেছিল ফলে ইন্দোনেশিয়ার সরকার ঘোষনা করেছে সৌদীতে আর শ্রমিক পাঠাবে না । বাংলাদেশেরও তাই করা উচিৎ ।
আশা করব সকল বাংলাদেশী বাংলাদেশীদের পক্ষে কথা বলবে । এটাই জ্ঞানী জাতির লক্ষন ।