ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

 


March 3, 2009: Lankan players board a helicopter after militants attacked the team bus at Gaddafi Stadium in Lahore.

ত্রাসের রাষ্ট্র পাকিস্তানে বিভিন্ন গোষ্ঠীর মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ চলছে, যার মধ্যে শিয়া-সুন্নি সংঘর্ষ, পাঠানদের সাথে উর্দূ ভাষীদের সংঘর্ষ ও আল-কায়দার সাথে সরকারের সংঘর্ষ উল্লেখ যোগ্য । এ ছাড়া বিভিন্ন আঞ্চলিক ও ধর্মীয় গোষ্ঠী গুলি বিভিন্ন অঞ্চলে সরকারের সাথে তো সংঘর্ষ করেই চলেছে ।

এই কট্টর ধর্মীয় গোষ্ঠী গুলো সরকারকে চাপে ফেলতে এমন কোনো কাজ নেই যা তাঁরা করতে পারে না । এই কট্টর ইসলামী সন্ত্রাসীরা তাদের কুকর্মের দ্বারা পাকিস্তানকে বিশ্ব প্রতিযোগিতা থেকে অনেকটা পেছনে ঠেলে দিয়েছে । এদেরকে সেনা বাহিনী দিয়েও সরকার নিয়ন্ত্রন করতে পারেনি তাই প্রশ্ন ওঠে বাংলাদেশ টিম কে পাকিস্তানের ব্যর্থ সরকার কেমন করে নিরাপত্তা দেবে ?

এতো গেল পাকিস্তানের অভ্যন্তরিন সমস্যার কথা । এবার আলোচনা করা যাক বহিরাগত হুমকি নিয়ে । ভারত ও পাকিস্তানের শত্রুতার কথা তো সারা বিশ্ব জানে । এই দুটি দেশ একে অপরকে পরাজিত করতে সব কিছু করতে পারে, পারমানবিক বোমা থেকে নাশকতা এবং অপপ্রচার থেকে কূট যুদ্ধ সব করতে পারে । এমতাবস্থায় বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর কালে ভারত যে নাশকতা করার চেষ্টা করবে না তা উড়িয়ে দেয়া যায় না । ভারতে ইন্টেলিজেন্স এজেন্সির পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এই ধরনের প্লানই বাস্তবায়ন করে থাকে ।

পাকিস্তান যে একটি বিপদজনক ইসলামী জঙ্গীদের দেশ তা প্রমাণ করতে ভারত এই বাংলাদেশের পাকিস্তান সফরকে ট্রাম কার্ড হিসেবে ব্যবহার করতে পারে ।
এননিতেই নিরাপত্তার কারনে কোনো দেশ পাকিস্তান সফর করতে প্রতুত নয় তার ওপর যদি পাকিস্তান সফর কালে বাংলাদেশ টিমের ওপর আক্রমন করানো যায় তাহলে ভারতের জন্য এটা হবে সোনায় সোহাগা ।

এক দিকে পাকিস্তানে ইসলামী সন্তাসীদের সরকার বিরোধী তৎপরতা ও বিভিন্ন জনজাতির মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ আর অন্য দিকে ভারতের পাকিস্তান বিরোধী মাস্টার প্লান, এই রকম বিপদজনক জায়গায় আমাদের ক্রিকেটার সোনার ছেলেদের পাঠানো মোটেও ঠিক হবে না । অনেক সাধনার পর শাকিব, তামিম, মুশফিকদের আমরা পেয়েছি, এদের নিয়ে আমাদের অনেক আশা, এদেরকে আমরা কখনই বিপদের মুখে ঠেলে দিতে পারি না ।

সরকারের কাছে আমার অনুরোধ শুধু পাকিস্তানের স্বার্থে বাংলাদেশ দলকে ঐ নিরাপত্তাহীন পাকিস্তানে পাঠাবেন না । পাকিস্তানে প্রতি দিন জঙ্গীরা পশুর মতো মানুষ হত্যা করছে । পাকিস্তান নিজের দেশের মানুষের নিরাপত্তা দিতে পারে না, বাংলাদেশ দলের নিরাপত্তা কি করে দেবে ?