ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

 

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে পুরোহিত হত্যায় সিরিয়া-ইরাকভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) দায় স্বীকারের বিষয়টি ভিত্তিহীন বলে জানিয়েছেন কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটি) প্রধান ও ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, মনগড়া তথ্য সরবরাহ করা ‘সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ’-এর লাভজনক ব্যবসা।

সোমবার দুপুরে ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

আমেরিকাভিত্তিক প্রতিষ্ঠান সাইট ইন্টেলিজেন্স একটি লাভজন কোম্পানি উল্লেখ করে মনিরুল ইসলাম বলেন, “তারা তাদের নিউজগুলো বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করে। আমেরিকায় বসে তারা শুধু কথিত আইএসের তথ্য পায়। কিন্তু বাংলাদেশের কোনো মিডিয়া, এমনকি বিশ্বের অন্য কোনো মিডিয়া এই খবর পায় না।”

অতিরিক্ত কমিশনার বলেন, “সাইটটি মনগড়া তথ্য সরবারাহ করে আমাদের বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করে। এর আগেও তারা মনগড়া খবর প্রকাশ করেছে। সেসব ঘটনা তদন্তের পর আসামি গ্রেপ্তার হয়েছে।”

কিন্তু এ সাইটের প্রকাশিত তথ্যের সঙ্গে আসামিদের দেওয়া তথ্যের কোনো মিল থাকে না জানিয়ে মনিরুল বলেন, “বিভিন্ন হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আসামিরা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। তারা হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে নিজেদের সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করলেও কখনোই আইএসের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেনি।”

দেশে সাম্প্রতিক ব্লগার, পুরোহিত, বিদেশি হত্যাকাণ্ডের প্রায় সব ঘটনায় জিহাদি কর্মকাণ্ড পর্যবেক্ষণকারী প্রতিষ্ঠান সাইট ইন্টেলিজেন্ট খবর প্রকাশ করে যে, আইএস এর সঙ্গে জড়িত। দেবীগঞ্জে সন্তগৌড়ীয় মঠের অধ্যক্ষ মহারাজ যগেশ্বর রায়ের হত্যাকাণ্ডের পরও সাইটটি আইএসের দায় স্বীকারের বিবৃতি প্রকাশ করে।

গত রবিবার সকালে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জের গৌড়ীয় মঠে পুরোহিত যগেশ্বরকে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বত্তরা। এ হামলায় গুলিবিদ্ধ হন আরও একজন পুরোহিত। আহত ব্যক্তি বর্তমানে ঢাকায় চিকিৎসারত আছেন।