ক্যাটেগরিঃ অন্যান্য

 

পুরো আরব বিশ্বে মারামরি হানাহানি চলছে, ইতি মধ্যেই তিউনিশিয়ার রাষ্ট্রপতি পালিয়ে গেছেন সৌদি আরবে।
মিশরের রাষ্ট্রপতি পদত্যাগ করেছেন জনরোষের মুখে, মারামরি চলছে ইয়েমেনে, বাহরাইনে, গৃহযুদ্ধের পথে লিবিয়া।

আজ বুধবার, কিছুক্ষন পূর্বে স্থানীয় সময় দুপুর ৩টার দিকে, সৌদি বাদশা ফিরেছেন চিকিৎসা শেষ করে আমেরিকা থেকে, আসার পূর্বেই ঘোষনা করেছেন, প্রত্যেক সৌদি নাগরিকের বেতন ভাতা দ্বিগুন করা হবে।
গরীব নাগরিকদের জন্য ৪৪ লাখ মিলিয়ন রিয়াল বরাদ্দ করেছেন, যাতে তারা বিয়ে, ব্যবসার জন্য সরকার থেকে সাহায্য পান সহজেই। দ্রব্যমূল্যের দাম কমানো হবে। আগামী শনিবার ছুটি ঘোষনা করেছেন। আরও অনেক কিছুই, আগামীকাল খবরের কাগজে আসবে,
আমি আরবী রেডিওতে শুনে যতটুকু বুঝতে পারলাম তাই লিখে দিলাম।

চেয়ারে থাকতে চান, থাকুন, কোন আপত্তি নাই, দয়াকরে জনগনকে শান্তিতে রাখার ব্যবস্থা করুন।

বাংলাদেশের সরকারের প্রতি অনুরোধঃ
দেশের মানুষ ভালো নাই, দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতি, মানুষের পারিশ্রমিক পর্যাপ্ত নয়। দিন দিন মানুষের দৈনিক খরচ বেড়েই চলছে, বাড়ছে বাড়ি ভাড়া, গাড়ি ভাড়া, গ্যাস বিল, বৈদ্যুতিক বিল, পানির বিল ইত্যাদি।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি বার বার বলছেনঃ সব কিছুতেই বিরোধী দলের ষড়যন্ত্র।

দয়াকরে, এই মূল্যহীন বক্তব্য থেকে বিরত থাকুন, মানুষ ভোট দিয়ে আপনাকে সরকার প্রধান বানিয়েছে, বিরোধী দলকে নয়, দয়াকরে কিছু করুন জনগনের জন্য……….

দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রন করতে পারছেন না, বিশ্বের প্রতিটা দেশেই দ্রব্যমূল্যের দাম দিন দিন বাড়ছে। মেনে নিলাম দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রন সম্ভব নয়। কিন্তু……

মানুষের বেতন ভাতা তো বাড়াতে পারেন, কিছুটা হলেও।
ঢাকা শহরের বাড়ি ভাড়া তো নিয়ন্ত্রন করা যেতে পারে। বিদ্যুৎ বিল, পানির বিল, গ্যাস বিল তো কিছুটা কমানো যেতে পারে …..

জনগন অনেক আশা আকাঙ্খা নিয়ে, আপনাদের রাষ্ট্রিয় ক্ষমতায় বসিয়েছেন, দয়াকরে, চেষ্টা করুন, কিছুটা হলেও পারবেন আশা করি……

বিনিত
শেখ সেলিম।